সনদ ছাড়াই তিনি ‘এমবিবিএস ডাক্তার’, আদালতে গিয়ে ধরা

বুধবার, জুন ১৯, ২০১৯

নোয়াখালী : নোয়াখালীতে আদালতে মামলার সাক্ষী দিতে এসে চিকিৎসক হিসেবে পরিচয়দানকারী এক ভুয়া ডাক্তারকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার বিকেলে জেলার ৪ নম্বর আমলী আদালতের বিচারিক উজমা শুকরানা এ আদেশ দেন।

চিকিৎসক পরিচয়দানকারী মোহাম্মদ উল্যাহ মামুন (৫৫) সেনবাগ উপজেলার মধ্যম মোহাম্মদপুর গ্রামের বাসিন্দা।

বাদীপক্ষের আইনজীবী খালেদ সাইফুদ্দিন কামরুল জানান, আজ একটি মামলায় আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন মামুন। আবেদনে তিনি নিজেকে একজন এমবিবিএস চিকিৎসক পরিচয় দেন। সেনবাগ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন চিকিৎসক বলে জানান তিনি।

মামলার শুনানি চলাকালে মামুনের পরিচয় নিয়ে বিচারকের সন্দেহ হলে আদালত তার এমবিবিএস পাসের সনদ দাখিল করার আদেশ দেন এবং তাকে দুই ঘন্টা সময় দেয়। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের মধ্যে মামুন চিকিৎসক হিসেবে কোনো কাগজপত্র উপস্থাপন করতে পারেননি। পরে আদালতে মিথ্যার আশ্রয় নেওয়ায় বিচারক তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।