বিনা পয়সায় পুলিশে নিয়োগের ঘোষনা, টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে গ্রেফতার ১

বুধবার, জুন ১৯, ২০১৯

খালিদ হাসান, বগুড়া প্রতিনিধি : বিনা পয়সায় পুলিশে নিয়োগের ঘোষনা দিয়েছেন বগুড়ার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঞা বিপিএম পিপিএম (বার)।

ঘুষ ও তদবির ছাড়া শুধু সরকার নির্ধারিত ফি ১০০ টাকায় পুলিশের কনস্টেবল পদে নিয়োগের প্রচারণা চালাচ্ছে জেলা পুলিশ। ঘুষ ছাড়া পুলিশে চাকরি হয় না, সাধারণ মানুষের এই ধারণা পাল্টে দিতে এমন উদ্যোগ নিয়েছেন বগুড়ার পুলিশ সুপার।

এ কারণে গত রমজান মাসে ইফতার মাহফিল ও বিভিন্ন সমাবেশে পুলিশে চাকরির জন্য কোনো প্রকার অর্থনৈতিক লেনদেন না করার আহ্বান জানান তিনি। জন সচেতনতার জন্য বগুড়া শহর সহ জেলার বিভিন্ন অঞ্চলে করা হচ্ছে পোষ্টারিং ও বৈঠক।

সম্পূর্ণ যোগ্যতার ভিত্তিতে পুলিশ কনস্টেবল নিয়োগের জন্য জেলা পুলিশের যখন এমন আয়োজন ঠিক তখনই বগুড়া পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের বায়েজিদ নামের এক ছাত্রকে পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকুরি নিয়ে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেন বগুড়া শহরের লতিফপুর কলোনী এলাকার বাসিন্দা আহনানুল কবির নামের এক দালাল।

আহনানুল কবির কয়েকদিন আগে বায়েজিদকে সাথে নিয়ে বগুড়া হাইওয়ে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে যান।বায়েজিদকে বাহিরে রেখে তিনি হাইওয়ে পু্লিশ সুপারের কক্ষে প্রবেশ করেন।

সেখান থেকে বের হয়ে বায়েজিদকে জানান আলোচনা হয়েছে তিন লক্ষ টাকা অগ্রীম দিতে হবে। বায়েজিদ বিষয়টি তার পরিবারকে জানালে তারা খোজ নিয়ে জানতে পারেন হাইওয়ে পূলিশ সুপার নিয়োগ বোর্ডের কেউ না।এতে তাদের সন্দেহ হলে তারা বিষয়টি থানা পুলিশকে জানায়।পরে পুলিশ কৌশলে আহসানুল কবিরকে গ্রেফতার করে থানায় আনে।

এদিকে আহসানুল কবির গ্রেফতারের খবর জানাজানি হলে কাহালু থানার কোহালী গ্রামের মশিউর রহমান থানায় হাজির হয়ে অভিযোগ করেন তার ভাতিজা আসিফ খানকে পুলিশে চাকুরি দেয়ার কথা বলে আহসানুল কবির ৬লক্ষ টাকা চুক্তি করে। এরমধ্যে গত ১৮ জুন মঙ্গলবার সপ্তপদী মার্কেটের সামনে ৯২ হাজার টাকা গ্রহন করে।

গ্রেফতারকৃত আহসানুল কবির বলেন তিনি চাকুরি দেয়ার কথা বলে টাকা গ্রহন করেননি।তবে বায়েজিদের ব্যাপারে সুপারিশ করতে তিনি হাইওয়ে পুলিশ সুপারের সাথে সাক্ষাত করেছেন। হাইওয়ে পুলিশ সুপার তার পরিচিত হওয়ায় তিনি বায়েজিদকে সাথে নিয়ে গিয়েছিলেন।

বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম বদিউজ্জামান বলেন, গ্রেফতারকৃত আহসানুল কবির (৫০) পাবনা সদর থানার মৃত সামছুদ্দিনের ছেলে।সে বগুড়া শহরের লতিফপুর কলোনী এলাকায় বসবাস করতো ।

বুধবার (১৯ জুন) দুপুরে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে ওসি বলেন বায়েজিদের সুত্র ধরে তাকে গ্রেফতার করা হয়।এর পর কাহালু থানার কোহালী গ্রামের মশিউর রহমান বাদী হয়ে আহসানুল কবিরের নামে মামলা করে।