শার্শায় মাদ্রাসার ছাত্র হত্যা মামলার আসামি মাদ্রাসা শিক্ষক আটক

বৃহস্পতিবার, জুন ১৩, ২০১৯

এম ওসমান, বেনাপোল প্রতিনিধি : যশোরের শার্শায় হিফজুল কোরআন এতিমখানা মাদ্রাসার ছাত্র শাহ পরাণ(১২) হত্যা মামলার আসামি মাদ্রাসা শিক্ষক ও মাদ্রাসা সংলগ্ন মসজিদের ইমাম হাফেজ হাফিজুর রহমানকে আটক করেছে পুলিশ।

যশোর নাভারণ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার জুয়েল ইমরান বুধবার সকাল ১১ টার সময় শার্শা থানায় এক সংবাদ সম্মেলন জানান মাহে রমজান শুরু হওয়ার ৩/৪ দিন পূর্বে রাতে আসামি শাহ-পরাণের সাথে সমকামিতার চেষ্ট করে ব্যর্থ হয়।

এ আক্রোশের জের ধরে ৩১ মে আসামি শাহ-পরাণকে কৌশলে আসামির নিজ বাড়ি শার্শা থানার গোগা গাজিপাড়া গ্রামের বসত বাড়িতে নিয়ে যায়। এরপর শাহ-পরাণকে

নির্মম ভাবে হত্যা করে এবং লাশ আসামির বসত ঘরের খাটের নিচে রেখে দেয়।

ঘটনার ৩ দিন পর গত ২ জুন সন্ধ্যায় শাহ-পরাণের পচা গলিত মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। গত কাল রাত সাড়ে ৮ টার সময় খুলনা জেলার দিঘলিয়া উপজেলার আরাবিয়া কওমি মাদ্রাসা থেকে কাগজ পুকুুর খেদা পাড়া হিফজুল কোরআন এতিমখানা মাদ্রাসার ছাত্র শাহ পরাণ(১২) হত্যা মামলার আসামি মাদ্রাসা শিক্ষক ও মাদ্রাসা সংলগ্ন মসজিদের ইমাম হাফেজ হাফিজুর রহমানকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার দুপুরে আটক হাফিজুর রহমানকে যশোর কোর্ট হাজতে পাঠিয়েছে।