আফতাবের বাবার ঋণ শোধ করলেন সালমান খান

বুধবার, জুন ১২, ২০১৯

বিনোদন ডেস্ক : বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের দান-দক্ষিণার কথা কে না জানেন। বড় হৃদয়ের মানুষ বলে ভারতে সুপরিচিত তিনি। এবারও উদাহরণ সৃষ্টি করলেন এ মহাতারকা।

ভারতের কালার্স টিভির গানের রিয়েলিটি শো ‘রাইজিং স্টার’-এর তৃতীয় মৌসুমের বিজয়ী ১২ বছরের আফতাব সিংয়ের বাবার ঋণ শোধ করলেন বলিউডের ভাইজান।

‘রাইজিং স্টার’-এর তৃতীয় মৌসুমে বিজয়ী হয়েছে ছোট্ট আফতাব। ট্রফির সঙ্গে ঘরে তুলেছে নগদ ১০ লাখ রুপি। পাঞ্জাবের ফরিদকোটের সন্তান আফতাব তার দায়িত্ব ভোলেনি। আফতাব জানিয়েছে, সে কঠোর পরিশ্রম করতে চায় এবং বলিউডে নিজেকে শিল্পী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চায়। আফতাব আরো জানায়, বোনের বিয়ের জন্য পুরস্কারের টাকা পরিবারকে দেবে সে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম মুম্বাই মিররকে আফতাব সিং বলেছে, ‘বাবাই আমার প্রেরণা। জীবনে তিনি অনেক সংগ্রাম করেছেন। আমি ধনীর দুলাল নই। বাবাকে কঠিন পরিশ্রম করতে দেখেছি। এই প্ল্যাটফর্মে আসতে আমার জন্য তিনি অনেক করেছেন। এটা আমার জয় নয়, তাঁর জয়।’ আফতাব আরো বলে, বোনের বিয়ের জন্য পুরস্কারের অর্থমূল্য মা-বাবার হাতে তুলে দেবে।

অভিনেতা সালমান খানেরও প্রশংসা করে আফতাব সিং। একদিন সালমানের সিনেমায় গান গাইবে, এমন ইচ্ছে তার। ১২ বছর বয়সী আফতাব আরো বলে, যেদিন ‘ভারত’ সিনেমার প্রচারের জন্য সালমান শোর সেটে যান, সেই পর্বটিই তাঁর জীবনের সেরা পর্ব।

আফতাব জানায়, ওই শোতে যখন তার পরিবারের দুর্দশা সম্পর্কে সালমান অবগত হন, তখনই বাবার ঋণ পরিশোধ করে দেওয়ার কথা বলেন। শোতে সঞ্চালক আদিত্য নারায়ণ জানিয়েছিলেন, ঘর মেরামতের জন্য আফতাবের বাবা মহেশ সিং তিন লাখ রুপি দেনা করেছেন। এ খবর জানার পর সাহায্যে এগিয়ে যান সালমান। সালমান ঋণ শোধ করে দিয়েছেন বলেও খবরে প্রকাশ।

‘রাইজিং স্টার’-এর তৃতীয় মৌসুমের সঞ্চালক ছিলেন আদিত্য নারায়ণ। বিচারক ছিলেন শংকর মহাদেব, নীতি মোহন ও দিলজিৎ দোসাঞ্জ। সূত্র : ইন্ডিয়া টিভি