গ্যাসলাইন বিস্ফোরণে শিশু নিহত, মা-বোন আহত

মঙ্গলবার, জুন ১১, ২০১৯

ঢাকা: রাজধানীর উত্তর জুরাইনের পাইপরাস্তার মোড়ে গ্যাসলাইন বিস্ফোরণে আবির (৮) নামের এক শিশু নিহত হয়েছে। এ সময় আবিরের মা সাথী আক্তার ও বোন আদিবা (১০) আহত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত পৌনে ৮টার দিকে আবির মারা যায়।

আবিরদের বাসা ধুপখোলা মুর্গিটোলা এলাকায়। তার বাবার নাম সজীব। আবির গেন্ডারিয়া মহিলা সমিতি স্কুলের প্রথম শ্রেণিতে পড়ত। তার বোন আদিবা ওই স্কুলের পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে।

নিহত শিশুর মা সাথী আক্তার জানান, তাঁরা উত্তর জুরাইনের পাইপরাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন। বাচ্চা দুটি তাঁর একটু আগে হাঁটছিল। এমন সময় রাস্তার নিচে থেকে বিকট শব্দে একটি বিস্ফোরণ হয়। এতে তাঁর দুই শিশু সন্তানসহ তিনি নিজেও আহত হন। সঙ্গে সঙ্গে তাদের হাসপাতাল নিয়ে আসা হয়। পরে আবির হাসপাতালে মারা যায়।

শিশুটির খালা আখি আক্তার জানান, তাঁর বড় বোন সাথী ছেলে-মেয়ে নিয়ে পাইপরাস্তা এলাকায় তাঁর বাসায় আসেন। সেখান থেকে সন্ধ্যায় তাঁরা মীরহাজীরবাগে আরেক বোনের বাসায় যাচ্ছিল। পাইপরাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিল তারা। শিশু দুটি সবার আগে আগে হাঁটছিল। এমন সময় রাস্তার নিচে থেকে বিকট একটি বিস্ফোরণ হয়। বিস্ফোরণে পাকারাস্তার বড় বড় স্ল্যাব আবিরের মাথায় ও আদিবার পাসহ শরীরের ওপর পড়ে। আর তার মায়ের পায়েও আঘাত লাগে। সঙ্গে সঙ্গে তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতাল নিয়ে আসা হয়।

শ্যামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, বিস্ফোরণের খবর পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তরের দায়িত্বরত কর্মকর্তা রাসেল শিকদার জানান, পাইপ রাস্তার মোড়ে সুয়ারেজ লাইনে জমে থাকা গ্যাসের চাপের কারণে সেটি বিস্ফোরিত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ঘটনাস্থলে আমাদের দুটি ইউনিট কাজ করছে। ঢাকা মেডিকেল পুলিশ ক্যাম্পের দায়িত্বরত পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া আবিরের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মৃতদেহ মর্গে রাখা হয়েছে।