ওয়ালটন এসি কিনে গাড়ি জেতার সুযোগ

বুধবার, মে ২৯, ২০১৯

ঢাকা : ঈদুল ফিতর উপলক্ষে এয়ার কন্ডিশনার ক্রেতাদের নানান সুবিধা দিচ্ছে ওয়ালটন। ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-৪ এর আওতায় ওয়ালটন এসি কিনে রেজিস্ট্রেশন করলেই রয়েছে নতুন গাড়ি পাওয়ার সুযোগ। থাকছে ফ্রিজ, টিভি, এসিসহ অসংখ্য পণ্য ফ্রি। এছাড়াও, আছে লাখ টাকা পর্যন্ত নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার।

বিক্রয়োত্তর সেবা অনলাইনের আওতায় আনার লক্ষ্যে সারা দেশে এই ক্যাম্পেইন চালাচ্ছে ওয়ালটন।

দেশের যেকোনো ওয়ালটন প্লাজা, পরিবেশক শোরুম এবং ই-প্লাজা থেকে এসি কিনে মোবাইল নম্বর দিয়ে পণ্যটি রেজিস্ট্রেশন করবেন ক্রেতা। এরপর ফিরতি এসএমএস-এ নতুন গাড়ি, ফ্রি পণ্য অথবা ক্যাশ ভাউচারের অংক জানিয়ে দেয়া হচ্ছে।

ওয়ালটনের ডেপুটি অপারেটিভ ডিরেক্টর মফিজুর রহমান জাকির জানান, এর পাশাপাশি ওয়ালটন এসি কিনে পুরো এক বছরের বিদ্যুৎ বিলের সমপরিমাণেরও বেশি টাকা ফ্রি পাওয়ার সুযোগ রয়েছে। আর ‘এসি এক্সচেঞ্জ অফার’ এর আওতায় যে কোনো ব্র্র্যান্ডের পুরনো এসি বদলে ২৫ শতাংশ ছাড়ে নতুন এসি দিচ্ছে তারা। সেইসঙ্গে, ওয়ালটন এসি কিনে গ্রাহক তার মোবাইল ফোনে এসির কলার টিউন সেট করলে এবং ক্রয়কৃত এসি ইনস্টল করার পর ছবি তুলে ফেসবুকে আপলোড করলেই মিলছে ১ হাজার টাকা ইনস্ট্যান্ট ক্যাশব্যাক।

এসির গ্রাহকদের ওয়ালটন দিচ্ছে ফ্রি ইনস্টলেশন সুবিধা। রয়েছে জিরো ইন্টারেস্টে ১২ মাসের ইএমআই এবং সহজ কিস্তিতে কেনার সুযোগ। ৬ মাসের রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টির পাশাপাশি ইনভার্টার এসির কম্প্রেসরে ১০ বছরের গ্যারান্টি দিচ্ছে ওয়ালটন।

এত সব সুবিধার কারণে দেশের বাজারে ব্যাপক বেড়েছে ওয়ালটনের এয়ার কন্ডিশনারের চাহিদা। চলতি বছরের প্রথম চার মাসে গত বছরের সমপরিমাণ এসি বিক্রি হয়েছে।

ওয়ালটন এসির প্রকৌশলীরা জানান, গ্রাহকের হাতে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির পণ্য তুলে দিতে এসিতে ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইনভার্টার, আয়োনাইজার, টার্বো কুলিং মোড, গোল্ডেন ফিনের মতো বিশ্বের লেটেস্ট প্রযুক্তি যুক্ত করেছেন তারা। ওয়ালটনের রয়েছে আইওটি বেইজড স্মার্ট এসি; যা ভয়েস কমান্ড ও মুঠোফোনে নিয়ন্ত্রণযোগ্য। অর্থাৎ ‘ভয়েস কন্ট্রোল’ বা ‘অ্যামাজন ইকো’র মাধ্যমে রিমোট কন্ট্রোল ছাড়াই স্মার্ট এসির শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা বাড়ানো, কমানো, চালু বা বন্ধ করা যাবে। এসিতে প্রতিদিন বা মাসিক বিল আসছে কত? ভোল্টেজ লো না হাই? কম্প্রেসর কি ওভারলোডে চলছে? ওয়ালটন স্মার্ট এসিতে এসব জানা যাবে সহজেই।

এ বছর ১২ হাজার বিটিইউ বা ১ টন, ১৮ হাজার বিটিইউ বা ১.৫ টন, ২১ হাজার বিটিইউ বা পৌনে ২ টন এবং ২ টনের মোট ২০ মডেলের স্প্রিট এসি বাজারে ছেড়েছে ওয়ালটন। ১.৫ ও ২ টনের ভেনচুরি ও রিভারাইন সিরিজের এসিতে যুক্ত হয়েছে এনার্জি সেভিং ইনভার্টার, আয়োনাইজার ও আইওটি স্মার্ট প্রযুক্তির নতুন মডেল। এগুলোর মধ্যে ২৪ হাজার বিটিইউ বা ২ টনের আইওটি বেজড ইনভার্টার স্মার্ট এসির দাম ৭৬ হাজার ৪০০ টাকা। শুধু ইনভার্টার এসির দাম ৭৪ হাজার ৯০০ টাকা এবং আয়োনাইজার প্রযুক্তির এসির দাম ৫৬ হাজার ৯০০ টাকা।

এদিকে, ভেনচুরি ও রিভারাইন সিরিজে আসা নতুন মডেলের ১.৫ টনের ইনভার্টার স্মার্ট এসি ৬৫ হাজার টাকায়, শুধু ইনভার্টার এসি ৬৩ হাজার ৫০০ টাকা এবং আয়োনাইজার এসি ৪৯ হাজার ৯০০ টাকায় কেনা যাচ্ছে।

এছাড়া ওয়ালটনের ১ টন এসি ৩৫ হাজার ৯০০ টাকায় এবং ২১ হাজার বিটিইউ’র বা পৌনে ২ টনের এসি ৫২ হাজার ৯০০ টাকায় কিনতে পারছেন গ্রাহক।

উল্লেখ্য, ওয়ালটনের প্রতিটি এসি আন্তর্জাতিকমানের টেস্টিং ল্যাব নাসদাত-ইউটিএস থেকে মান নিয়ন্ত্রণ সনদ পাওয়ার পরে বাজারজাতকরা হয়। গ্রাহক পর্যায়ে দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা পৌঁছে দিতে ওয়ালটনের রয়েছে আইএসও সনদপ্রাপ্ত সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম। এর আওতায় সারা দেশে রয়েছে ৭০টিরও বেশি সার্ভিস সেন্টার। সেখানে নিয়োজিত রয়েছেন আড়াই হাজারের বেশি প্রকৌশলী ও টেকনিশিয়ান।