দুই স্বামীর সঙ্গে সংসার করেন শিক্ষিকা!

রবিবার, মে ২৬, ২০১৯

ঢাকা: ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার রেজবীন নাহার (৩১) নামের এক স্কুল শিক্ষিকা স্ত্রীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন স্বামী আল আমিন রনি। শনিবার সকালে গফরগাঁও প্রেসক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি।

রেজবীন নাহার লামকাইন মধ্যপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা।

আল আমিন রনি অভিযোগ করে বলেন, ২০১৩ সালে ১৪ নভেম্বর উপজেলার পাগলা থানাধীন দত্তেরবাজার ইউনিয়নের বিরই গ্রামের রফিকুল ইসলামের মেয়ে রেজবীন নাহারের সঙ্গে কাবিন রেজিস্ট্রিমূলে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্ত্রী রেজবীন নাহার পৌরশহরের শিলাসী গ্রামে আমার বাড়িতে বসবাস করে আসছিলেন।

তিনি বলেন, পরে রেজবীন নাহার আমাদের বিয়ের তথ্য গোপন রেখে প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে ২০১৬ সালে ৮ জুলাই একই উপজেলার উস্থি ইউনিয়নের নয়াবাড়ি গ্রামের মো. নূরুল ইসলামের ছেলে জহিরুল ইসলামকে বিয়ে করেন। এরপর থেকেই স্ত্রী রেজবীন নাহার গোপনে দুই স্বামীর সঙ্গে সংসার করতে থাকেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, প্রতারণা করে বিয়ে এবং গোপনে দুই স্বামী সঙ্গে সংসার করার বিষয়টি প্রকাশ পেলে ঘটনাটি চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। পরে প্রথম স্বামী আল আমিন রনি স্ত্রী রেজবীনকে আনতে গেলে তার বাবা রফিকুল ইসলাম তাতে বাধা দেন। উল্টো প্রথম স্বামী আল আমিন রনির বিরুদ্ধে গত ৩ মে পাগলা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন রেজবীন নাহারের বাবা রফিকুল ইসলাম।

স্বামী আল আমিন রনি প্রতারক স্ত্রী ও তার বাবার দায়ের করা মিথ্যা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে প্রশাসনের সহযোগিতা দাবি করেন।

এ ঘটনায় রেজবীন নাহারের মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে ফোন বন্ধ থাকায় কথা বলা সম্ভব হয়নি।

সংবাদ সম্মেলনে আল আমিন রনির বাবা নূরুল আমিন, চাচা আবুল কাশেম, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তি মো. বদর উদ্দিন, আবুল কাশেম উজ্জল, মো. পাভেল, মো. শামছুদ্দিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।