বগুড়ায় ভাগ্নের হাতে খালা খুন

মঙ্গলবার, মে ২১, ২০১৯

খালিদ হাসান, বগুড়া প্রতিনিধি : বগুড়ার শেরপুরে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে ভাগ্নের লাঠির আঘাতে নিহত হয়েছেন খালা। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার মির্জাপুরের তালতা শেখপাড়া গ্রামে এই খুনের ঘটনা ঘটে।

নিহত খালা নাসিমা বেগম উপজেলার আয়রা পুরাতন পাড়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী বলে জানা গেছে। এদিকে এঘটনায় নিহতের ভাগ্নে রাজু আহমেদ সহ তার পরিবারের ৪ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মৃত নবীর হোসেনের মেয়ে নাসিমা বেগম ও আঞ্জুয়ারা বেগম সম্পর্কে দুই বোন। তাদের পৈত্রিক বসতবাড়ি তালতা শেখপাড়া গ্রামে। বিয়ের পর নাসিমা বেগম স্বামী জাহাঙ্গীর আলমের পাশের আয়রা পুরাতন পাড়া গ্রামে বসবাস করেন।

আর আঞ্জুয়ারা স্বামী আব্দুল খালেক ও সন্তানাদি নিয়ে তালতা শেখপাড়া গ্রামেই বসবাস করেন। পৈত্রিক সূত্রে নাসিমা বেগম দুই শতাংশ জমি পায়। কিন্তু তার বোন আঞ্জুয়ারা বেগম সেই জমির দিতে অস্বীকার করে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বিরোধে চলে আসছিলো। ঘটনার দিন দুপুরে বোনের কাছ থেকে সেই জমির দখল বুঝে নিতে নাসিমা তালতা শেখপাড়া গ্রামে আসে।

এতে আঞ্জুয়ারা বেগম তার ওপর প্রচণ্ড রেগে যান। বিষয়টি নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি থেকে হাতাহাতি ও মারামারি শুরু হয়। একপর্যায়ে আঞ্জুয়ারার ছেলে রাজু আহমেদ খালা নাসিমা বেগমের মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করলে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।

এব্যাপারে শেরপুর থানার ওসি (তদন্ত) বুলবুল ইসলাম জানান,নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তালতা শেখপাড়া গ্রামের আব্দুল খালেকের স্ত্রী আঞ্জুয়ারা বেগম, তার ছেলে রাজু আহমদে, মেয়ে খালেদা খাতুন ও রাজু আহমেদের স্ত্রী সানজিদা বেগমকে আটক করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।