আতঙ্কের আরেক নাম আমির

মঙ্গলবার, মে ২১, ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক : পাকিস্তানের পেস তারকা মোহাম্মদ আমির। বিশ্বকাপের স্কোয়াডে যায়গা পাওয়া ক্রিকেটারদের মধ্যে সবচেয়ে আলোচিত ক্রিকেটার এই পাকিস্তানি তারকা। যাকে দলে না নেয়ায় আলোচনার ঝড় বয়ে গিয়েছিলো পুরো ক্রিকেটাঙ্গনে।

অথচ এই আমিরেই ২০১৭ সালে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে একাই ভারতের টপ অর্ডার গুটিয়ে দিয়েছেন। আর এতেই চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল পাকিস্তান। কিন্তু সেই বোলারকে দলে নিতে কত জলগোলা করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

পাকিস্তান দলে যে উপেক্ষিত, অন্য দলগুলোর ঘরে সে আমিরই আবার আতঙ্ক। সেই বিষয় কি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড জানে? চ্যাম্পিয়ন ট্রফির আগে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে আমির ছিলেন ভীতির কারণ। সে ম্যাচেও ভারতের টপ অর্ডার একাই লন্ডভন্ড করে দেন আমির।

এবার বিশ্বকাপেও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ রয়েছে পাকিস্তানের। প্রথমদিকে আমিরকে দলে না নিলে অনেক স্বস্তি অনুভব করেছিলো ভারত। তবে আমির এবং ওয়াহাব রিয়াজকে দলে নেয়ার পর পাকিস্তান দল যে অনেক অনেক শক্তিশালী হয়েছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। এরমধ্যে ভারতীয় ক্রিড়াবিদরা আমির ভীতি নিয়ে কথা বলেছেন বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে।

আমির দলে ফেরাতে পাকিস্তান বোলিং অ্যাটাক কি আসলে শক্তিশালী হয়েছে? অলরাউন্ডার ফাহিম আশরাফের বদলে দলে জায়গা পেয়েছেন মোহাম্মদ আমির। আমির কি পারবেন নির্বাচকদের আস্থার মর্যাদার দাম দিতে? সেই জবাব হয়তো খেলার মাঠেই দিতে নিজেকে তৈরি করছেন আমির।

সর্বশেষ ইংল্যান্ড সফরে ৪-০ তে সিরিজ হারলেও ইংল্যান্ডের অধিনায়ক ইয়ান মর্গানের কাছে ইংল্যান্ডের পর পাকিস্তানই ফেভারিট। তার কারণ, পাকিস্তানের ব্যাটিং অর্ডার অনেক শক্তিশালী। এবং বোলিং অ্যাটাকে তাদের অভিজ্ঞ বোলিং যুক্ত হয়েছে।