মমেক শিক্ষার্থীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে বিক্ষোভ, ক্লাস বর্জন

বৃহস্পতিবার, মে ১৬, ২০১৯

ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের (মমেক) তৃতীয় বর্ষের এক নারী শিক্ষার্থীকে এক রিকশাচালকের শ্লীলতাহানির প্রতিবাদে ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন করেছেন শিক্ষার্থীরা।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে কলেজের একাডেমিক ভবনের প্রধান গেটে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন তারা।

পরে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধি দল নিয়ে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে সভায় বসেছে কলেজ প্রশাসন। কলেজ প্রিন্সিপাল অধ্যাপক ডা. আনোয়ার হোসেন সভায় সভাপতিত্ব করছেন।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা জানান, কলেজ ক্যাম্পাসের ভেতরে বুধবার (১৫ মে) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ইফতার কিনে ফেরার পথে এক নারী শিক্ষার্থীকে একা পেয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালায় এক বখাটে রিকশাচালক। এরপর মেয়েটির চিৎকারে কেউ এগিয়ে আসার আগে ওই রিকশাচালক চম্পট দেন।

পরে বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভে ফেটে পড়েন। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে কলেজের প্রায় পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থী ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন করে আন্দোলনে নামে।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের পক্ষে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু হাসান সরকার গণমাধ্যমকে বলেন, আমরা অবিলম্বে ওই রিকশাচালককে আটক, কলেজ হোস্টেলের গেটে সার্বক্ষণিক গার্ড, লেডিস হোস্টেলের গেটসহ পুরো ক্যাম্পাসে সিসি ক্যামেরা স্থাপন, পর্যাপ্ত আনসার নিয়োগ ও পুলিশি টহল বাড়ানোর দাবি জানিয়েছি।

কলেজ প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে আমাদের শিক্ষার্থীদের একটি প্রতিনিধি দলের বৈঠক চললেও আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা নিয়মতান্ত্রিকভাবেই আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন।