সরকারের চাপে শপথ নিচ্ছেন বিএনপির নির্বাচিতরা: ফখরুল

শুক্রবার, এপ্রিল ২৬, ২০১৯

ঢাকা : সরকারের চাপের মুখে বিএনপির নির্বাচিত সংসদ সদস্য জাহিদুর রহমান শপথ নিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) রাজধানীর চন্দ্রিমা উদ্যানে জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের উদ্যোগে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদান শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির সংসদ সদস্যের শপথের বিষয়ে সরকারের চাপ আছে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এটা তো স্বাভাবিক। বাংলাদেশের রাজনীতিতে এটি অস্বাভাবিক ব্যাপার নয়। বাংলাদেশে বরাবরই দল ভাঙার এ ধরনের প্রচেষ্টা হয়েছে, ভেঙেছেও। কিন্তু বিএনপির বিরুদ্ধে এই ধরনের প্রচেষ্টা করে কখনও কোনও লাভ হয়নি। বিএনপি সব সময়ই ফিরে এসে নিজের পায়ে দাঁড়িয়েছে এবং স্বমমহিমায় জনগণের কাছে ফিরে এসেছে।’

বিএনপিতে ভাঙন শঙ্কা আছে কিনা- এমন প্রশ্নে সরকারের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এসব বিষয়ে আমাদের কোনও উদ্ধেগ নেই। বিএনপি জনগণের একটি দল হিসেবে এদেশে সবসময়ই সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে আসছে। নিঃসন্দেহে এই চাপ সবসময় থাকে। যে সরকারই ক্ষমতায় থাকুক, যারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয় না তাদেরকে এই ধরনেরই হীন অগণতান্ত্রিক কৌশল অবলম্বন করতে হয় ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘জাহিদুর রহমান শপথ নিয়েছেন দলের সিদ্ধান্ত ভঙ্গ করে। এটা তিনি অত্যন্ত গর্হিত কাজ তো করেছেনই, আমি বলবো অন্যায় করেছেন অপরাধ করেছেন। এই জন্য তার বিরুদ্ধে সংগঠন ব্যবস্থা নেবে। যেটাকে আমরা বলি সাংগঠনিক ব্যবস্থা। সেটা অবশ্যই নেয়া হবে।’

এ সংক্রান্ত অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এখানে এমপিরা বলতে তো কেউ নেই। একজন গেছেন শপথ নিয়েছেন, বাকি যারা নির্বাচিত আছেন তাদের সিদ্ধান্ত তো আমরা এখনও জানি না। তারা আমাদেরকে জানাননি এখনও। ফলে দলের সিদ্ধান্ত যেটা ছিল সেটাই বহাল আছে। আমরা শপথ গ্রহণ করবো না এই বিষয়ে আর কোনও দ্বিমত থাকার কথা নয়।’

ফখরুল বলেন, ‘দলের সিদ্ধান্ত যারা ভঙ্গ করবেন তাদের বিরুদ্ধে দলের যে সিদ্ধান্ত নেয়ার দরকার সেটি গ্রহণ করা হবে। আমরা মনে করি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল একটা জনগণের দল। একটি গোষ্ঠী বা একটি ব্যক্তি যদি কোন সিদ্ধান্ত নেয় এই দলের খুব বেশি ক্ষতি হয় না।’

ফখরুল বলেন, ‘জাতীয়তাবাদী মহিলা দল আজকের শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে শপথ নিয়েছে কারারুদ্ধ দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার এবং গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রামে আরও বেগবান আন্দোলন গড়ে তোলার। তারা সেই লক্ষ্যে ঐক্যবদ্ধ রয়েছেন। আগামী দিনে সংগ্রামের জন্য তারা শপথ নিয়েছেন।’

এসময় জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, সাধারণ সম্পাদক সুলতান আহমেদ, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরিন খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।