বিশ্বকাপে আম্পায়ার হিসেবে থাকবেন যারা

শুক্রবার, এপ্রিল ২৬, ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক: আসন্ন ওয়ানডে বিশ্বকাপের ম্যাচ পরিচালনার জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে ২২ জন ম্যাচ অফিশিয়ালের নাম ঘোষণা করেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। ১৬ জন আম্পায়ার এবং ৬ জন ম্যাচ রেফারিকে নিয়ে করা হয়ে ম্যাচ পরিচালকদের এ তালিকা।

আগামী ৩০ থেকে শুরু হয়ে ১৪ জুলাই পর্যন্ত ৪৮টি ম্যাচে এই ২২ জনকেই দেখা যাবে বিভিন্ন ম্যাচের দায়িত্বে। এর মধ্যে ৩০ মে ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার উদ্বোধনী ম্যাচে রেফারির দায়িত্ব পালন করবেন অস্ট্রেলিয়ান ডেভিড বুন।

এছাড়া সে ম্যাচে আম্পায়ারিং করবেন শ্রীলঙ্কার কুমার ধর্মসেনা এবং অস্ট্রেলিয়ার ব্রুস অক্সেনফোর্ড। থার্ড আম্পায়ারের দায়িত্ব পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ারই পল রেইফেল এবং অতিরিক্ত আম্পায়ার হিসেবে থাকবেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের জোয়েল উইলসন। সেমিফাইনাল এবং ফাইনাল ম্যাচের আম্পাআরদের তালিকা জানানো হবে লিগপর্ব শেষে।

আইসিসির আম্পায়ার এবং রেফারি কমিটির সিনিয়র ব্যবস্থাপক অ্যাডাম গ্রিফিথ বলেন, ‘বিশ্বকাপ খেলার পাশাপাশি বিশ্বকাপে আম্পায়ারিং করা দারুণ সম্মানের বিষয়। যেকোনো ম্যাচ অফিশিয়ালের ক্যারিয়ারের জন্য একটি মাইলফলকও এটি। তবে এ কাজটি সহজ নয়। সারাবিশ্বের কোটি সমর্থকের সজাগ দৃষ্টি থাকে আম্পায়ারদের সিদ্ধান্তের প্রতি। তবে আমি নিশ্চিত করতে পারি ২২ জনের যে গ্রুপ দেয়া হয়েছে, তারাই বর্তমানে পৃথিবীর সেরা। প্রত্যেকের জন্য শুভকামনা।’

বিশ্বকাপের জন্য ঘোষিত রেফারিদের তালিকায় সবচেয়ে অভিজ্ঞ হলে লঙ্কান রঞ্জন মাদুগালে। এ নিয়ে ষষ্ঠ বিশ্বকাপে দায়িত্ব পালন করবেন তিনি। এছাড়া ক্রিস ব্রড এবং জেফ ক্রোয়ের জন্য রেফারি হিসেবে চতুর্থ বিশ্বকাপ এটি। পঞ্চমবারের মতো বিশ্বকাপে আম্পায়ারিং করতে নামবেন পাকিস্তানি আম্পায়ার আলিম দার।

এদিকে ইংলিশ আম্পায়ার ইয়ান গোল্ডের জন্য এটি চতুর্থ ও শেষ বিশ্বকাপ। কারণ টুর্নামেন্ট শেষেই অবসরের ঘোষণা দিয়ে রেখেছেন তিনি। ১৯৮৩ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের উইকেটরক্ষক হিসেবে খেলা ৬১ বছর বয়সী গোল্ড এখন পর্যন্ত ৭৪ টেস্ট, ১৩৫ ওয়ানডে এবং ৩৭ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে আম্পায়ারিং করেছেন।

ক্রিকেটের প্রতি গোল্ডের অবদানের কথা স্বীকার করে আইসিসির মহাব্যবস্থাপক জিওফ অ্যালার্ডাইস বলেন, ‘লম্বা সময় ধরে ক্রিকেটের প্রতি অনেক অবদান রেখেছেন গোল্ড। বিশেষ করে গত এক যুগে আম্পায়ার হিসেবে আইসিসির সঙ্গে দারুণ কাজ করেছেন তিনি। সবসময় খেলাটাকেই গুরুত্ব দিয়েছেন, যে কারণে বিশ্বব্যাপী সমাদৃত হয়েছে। মাঠে তার উপস্থিতি মিস করবো। তবে আমি নিশ্চিত অবসরের পরেও ক্রিকেটের সঙ্গেই থাকবেন তিনি।’

বিশ্বকাপে ম্যাচ রেফারিদের তালিকা: ক্রিস ব্রড (ইংল্যান্ড), ডেভিড বুন (অস্ট্রেলিয়া), অ্যান্ডি পাইক্রফট (জিম্বাবুয়ে), জেফ ক্রো (নিউজিল্যান্ড), রঞ্জন মাদুগালে (শ্রীলঙ্কা) এবং রিচি রিচার্ডসন (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)

বিশ্বকাপে আম্পায়ারদের তালিকা: কুমার ধর্মসেনা (শ্রীলঙ্কা), মারাইস এরাসমাস (দক্ষিণ আফ্রিকা), ক্রিস গ্যাফানি (নিউজিল্যান্ড), ইয়ান গোল্ড (ইংল্যান্ড), আলিম দার (পাকিস্তান), রিচার্ড ইলিংওর্থ (ইংল্যান্ড), রিচার্ড কেটেলব্রো (ইংল্যান্ড), নাইজেল লং (ইংল্যান্ড), ব্রুস অক্সেনফোর্ড (অস্ট্রেলিয়া), সুন্দরাম রবি (ভারত), পল রেইফেল (অস্ট্রেলিয়া), রড টাকার (অস্ট্রেলিয়া), জোয়েল উইলসন (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), মাইকেল গফ (ইংল্যান্ড), রুচিরা পাল্লিয়াগুরুগে (শ্রীলঙ্কা) এবং পল উইলসন (অস্ট্রেলিয়া)।