রোহিঙ্গাদের তহবিলের অর্থ অপচয় হচ্ছে না: ইউএনএইচসিআর

সোমবার, মার্চ ২৫, ২০১৯

ঢাকা : রোহিঙ্গাদের সহায়তায় গঠিত তহবিলের অর্থ নয়ছয় বা অপচয় হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থার (ইউএনএইচসিআর) আঞ্চলিক প্রতিনিধি খালেদ খলিফা।

আজ সোমবার রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা জানান।

খালেদ খলিফা বলেন, তহবিলের কোনো অপচয় হচ্ছে না। আমরা কক্সবাজারের স্থানীয় বাসিন্দা এবং রোহিঙ্গাদের চাহিদা গুরুত্ব দিয়েই তহবিলের অর্থ ব্যবহার করছি।

তিনি বলেন, তহবিলের অর্থের যথাযথ ব্যবহার করার বিষয়ে জবাবদিহিতা থাকা দরকার, এটি সত্য। জবাবদিহিতা না থাকলে কোনো কাজই স্বচ্ছতার সঙ্গে করা যায় না।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, রোহিঙ্গাদের সহায়তার জন্য চলতি বছর ৯২০ দশমিক ৫ মিলিয়ন ডলার প্রয়োজন। এই অর্থের মধ্যে ১৪ শতাংশ সংগ্রহ করা গেছে। বাকি অর্থ দেওয়ার জন্য সহায়তায় গঠিত সংস্থার তালিকাভুক্ত দেশগুলোকে জানানো হবে।

সম্প্রতি অভিযোগ করা হয়েছে, এনজিওরা রোহিঙ্গাদের জন্য বাংলাদেশে আনা ত্রাণ সাহায্যের প্রায় ৭৫ ভাগই নিজেদের স্বার্থে খরচ করেছে। প্রায় ১৫০ কোটি টাকা ছয় মাসে হোটেলের বিল বাবদ ব্যয় করা হয়েছে। একইসঙ্গে পারডিয়েম, বাসস্থান এবং যাতায়াত খাতে বিশাল ব্যয় করা হয়েছে। এসব অভিযোগের প্রেক্ষিতে এ তথ্য জানালো ইউএনএইচসিআর।