অ্যাসিডে ঝলসানো দীপিকার মুখ!

সোমবার, মার্চ ২৫, ২০১৯

বিনোদন ডেস্ক : ছবির নাম ‘ছপাক’! ঠিক যেন আচমকা ছিটিয়ে দেয়া হল তরল কিছু। আর ভয়ঙ্কর সেই তরলের জ্বালায় জ্বলে পুড়ে খাক হয়ে গেল গোটা একটা জীবন।

পদ্মাবতী-র অসামান্য সাফল্যের পর দীর্ঘদিন ছবি করেননি দীপিকা পাড়ুকোন। বিয়ে করেছেন, কিছুদিন সংসারও করেছেন চুটিয়ে। এবার আবার বড় পর্দায় ফিরছেন রণবীর সিং ঘরণী। তাকে দেখা যাবে মেঘনা গুলজারের ‘ছপাক’ ছবিতে। শুধু মুখ্য ভূমিকাতেই নয়, ছবিটি প্রযোজনাও করছেন দীপিকা।

আজ থেকেই নাকি শুরু হচ্ছে ছপাক-এর শুটিং। তবে তার আগেই প্রকাশ্যে এসেছে দীপিকার ফার্স্ট লুক। পোস্টারে দেখা যাচ্ছে, অ্যাসিডে ঝলসানো দীপিকার মুখ! এমন বীভৎস এক চেহারায় সামনে এসেছেন দীপিকা।

যে অ্যাসিড আক্রান্তের জীবন নিয়ে ছবির গল্প, তার নাম লক্ষ্মী আগরওয়াল। ২০০৫-এ নয়া দিল্লির একটি বাস স্টপে দাঁড়িয়ে থাকার সময় ১৫ বছরের মেয়েটির ওপর অ্যাসিড হামলা হয়। হামলাকারীর বয়স ছিল ৩২ বছর। লক্ষ্মীর পরিবারের সঙ্গে আগে থেকে আলাপ ছিল তার।

এদিকে জীবনের এমন মারাত্মক পরিহাসেও ভেঙে পড়েননি লক্ষ্মী। বরং সুস্থ হয়ে উঠে আইন নিয়ে পড়াশোনা করেন, যাতে অ্যাসিড আক্রান্তদের পাশে দাঁড়াতে পারেন। এখন লক্ষ্মী আগরওয়াল বিখ্যাত আইনজীবী, যিনি অ্যাসিড আক্রান্তদের সুবিচারের লক্ষ্যে লড়াই করেন।

লক্ষ্মীর জীবনের এই ১০ বছরের গল্প তুলে ধরা হবে ‘ছপাক’ সিনেমায়। ছবির একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হল সুপ্রিম কোর্টে বিখ্যাত সেই জনস্বার্থ মামলা, যার জেরে ২০১৩ সালে অ্যাসিড ছোঁড়া সংক্রান্ত আইনে পরিবর্তন আনা হয়। সব কিছু ঠিক থাকলে আগামী বছর ১০ জানুয়ারি মুক্তি পাবে ছপাক। সূত্র: এবিপি-আনন্দ