প্রেসিডেন্ট রুহানির ইরাক সফরে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ক্ষোভ প্রকাশ

বৃহস্পতিবার, মার্চ ১৪, ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইরানের প্রেসিডেন্টের ইরাক সফরের ব্যাপারে মার্কিন কর্মকর্তারা একের পর এক ক্ষোভ প্রকাশ করে যাচ্ছেন। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও তেহরান-বাগদাদ সম্পর্ক শক্তিশালী হওয়ার ব্যাপারে অসন্তোষ প্রকাশ করে বুধবার (১৩ মার্চ) বলেছেন, ইরাককে ‘তাবেদার রাষ্ট্র’ বানাতে চায় ইরান। খবর পার্সটুডে।

এর আগে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ইরান অ্যাকশন গ্রুপের প্রধান ব্রায়ান হুক দুদিন আগে একই ধরনের মন্তব্য করেছিলেন।

ইরাকি জনগণকে অপমান করে ব্রায়ান হুক বলেন, ইরান সরকার ইরাককে নিজের ‘একটি প্রদেশে’ পরিণত করতে চায়।

ইরান যাতে বিশ্বের কোনো দেশের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক স্থাপন করতে না পারে সে চেষ্টা করছে আমেরিকা। বিশেষ করে প্রতিবেশী দেশ ইরাকের সঙ্গে যেন ইরানের সুসম্পর্ক গড়ে না ওঠে সে লক্ষ্যে আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছে ওয়াশিংটন। কিন্তু সে প্রচেষ্টা ভণ্ডুল করে দিয়ে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি। গত বুধবার তিন দিনব্যাপী ইরাক সফর শেষ করেছেন রুহানি।

ইরানের প্রেসিডেন্টের এ সফরে দু’দেশ যেসব সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষর করেছে তা বাস্তবায়ন না করার জন্য এরইমধ্যে ওয়াশিংটন বাগদাদের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে শুরু করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

তবে সাম্প্রতিক সফরের সময় ইরাকি কর্মকর্তারা প্রেসিডেন্ট রুহানিকে জানিয়েছেন, ওয়াশিংটনের চাপ উপেক্ষা করে তারা যেমন ইরানি প্রেসিডেন্টের সফরের আয়োজন করেছেন তেমনি এ সফরে অর্জিত সমঝোতাগুলিও তারা বাস্তবায়ন করতে বদ্ধপরিকর।