বদরগঞ্জে নির্বাচনী লড়াইয়ে নারী নেত্রী-সাংবাদিক আফরোজা

রবিবার, মার্চ ৩, ২০১৯

ঢাকা: রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনী মাঠে লড়াইয়ে নেমেছেন আফরোজা বেগম। নারী নেত্রী আফরোজা বেগম সমাজ উন্নয়নের কর্মী হিসেবে কাজ করতে ভালবাসেন। তারই ধারাবাহিকতায় কলস মার্কা নিয়ে আসন্ন বদরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

তিনি যৌন হয়রানি, বাল্যবিয়ে, নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ এবং নির্যাতিত ও অবহেলিত নারীর অধিকার বাস্তবায়নের ব্রত নিয়ে ভাইস-চেয়ারম্যান পদে কলস মার্কা নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন।

জানা যায়, আফরোজা বেগম পেশায় একজন সাংবাদিক। দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় কর্মরত রয়েছেন।

তিনি বদরগঞ্জ উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ রংপুর জেলা কমিটির সহ-সভাপতি ও বিভাগীয় সমন্বয় কমিটির সদস্য এবং বদরগঞ্জ উপজেলা নারী কল্যাণ সংস্থার সাধারণ সম্পাদক পদে দায়িত্বে রয়েছেন। এছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক ও নাগরিক কর্মকাণ্ডে জড়িত রয়েছেন। একারণেই বদরগঞ্জ উপজেলা জুড়ে সাংবাদিক ও নারী নেত্রী হিসাবে ব্যাপক পরিচিতি রয়েছে আফরোজা বেগমের।

আফরোজা বেগম বলেন, ‘আমি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আর্দশে বিশ্বাসী। তাই তাঁর যোগ্য উত্তরসুরি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভবিষ্যত উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় শামিল হতে ব্যাপক পরিকল্পনা হাতে নিয়েছেন। সেই অগ্রযাত্রায় আমিও অংশীদার হতে চাই। আমি বদরগঞ্জ উপজেলার সাধারণ মানুষের জন্য কিছু করতে চাই। আর সে কারনেই আমার নির্বাচনে আসা।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি প্রচারণায় নেমেই আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দসহ দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারন মানুষের ব্যাপক সাড়া পেয়েছি।’

নারী নেত্রী আফরোজা বেগম বলেন, ‘গ্রামীণ জনপদের নারীরা সমাজের অন্ধকারে বন্দি রয়েছে। নির্বাচিত হলে বদরগঞ্জ উপজেলায় নারীর প্রতি সহিংসতা রোধ, নির্যাতিত ও অবহেলিত নারীর কল্যাণে এবং মাদকমুক্ত উপজেলা গঠনে নিজেকে নিয়োজিত রাখবো।’

উল্লেখ্য, আগামী ১৮ মার্চ বদরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।