রোহিঙ্গাদের সহায়তায় ৯২ কোটি ডলার চায় জাতিসংঘ

শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০১৯

ঢাকা : মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের জন্য ৯২ কোটি ডলারের মানবিক সহায়তা চেয়েছে জাতিসংঘ। চলতি বছরের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে এই আর্থিক সহায়তা চাওয়া হয়েছে।

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা (ইউএনএইচসিআর) ও আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) শুক্রবার এ বিষয়ে একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।

এর আগে শুক্রবার জাতিসংঘের এজেন্সিগুলো এবং এনজিও সহযোগীরা রোহিঙ্গাদের জন্য যৌথ রেসপন্স প্ল্যান ঘোষণা করে। নতুন পরিকল্পনায় জাতিসংঘ সংস্থাগুলোসহ মোট ১৩২টি সংস্থা কাজ করবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশে অবস্থানকারী প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা এবং প্রায় সাড়ে তিন লাখ স্থানীয় জনগোষ্ঠীর মানবিক সহায়তার জন্য এই ৯২ কোটি ডলার খরচ হবে।

এর আগে গত বছর জাতিসংঘের পক্ষ থেকে ৯৫ কোটি ডলার সহায়তা চাওয়া হয়। কিন্তু পাওয়া যায় সাড়ে ৬৫ কোটি ডলার।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এ বছরের সহায়তার অর্ধেকের বেশি খাদ্য, পানি, পয়ঃনিষ্কাশন, বাসস্থানের জন্য বরাদ্দ করা হবে। বাকি অর্থ স্বাস্থ্য, ক্যাম্প ব্যবস্থাপনা ইত্যাদি খাতে ব্যয় হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর কয়েকটি চেকপোস্টে হামলাকে কেন্দ্র করে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের ওপর সাঁড়াশি অভিযান চালায় দেশটির সেনাবাহিনী। ভয়াবহ ওই অভিযানে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা মুসলিম বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নিয়েছে।

এ ছাড়া বিভিন্ন সময়ে জাতিগত সহিংসতায় পালিয়ে আসা দুই লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা আগে থেকেই বাংলাদেশে অবস্থান করছে।

জাতিসংঘ নৃশংস ওই অভিযানকে জাতিগত নিধন বলে উল্লেখ করেছে।