শুটিং করতে গিয়ে দূর্ঘটনার কবলে ফেরদৌস-পূর্ণিমা

রবিবার, ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৯

বিনোদন ডেস্ক : উপন্যাস বা সাহিত্য নির্ভর গল্পে নিয়ে যেসব ছবি নির্মিত হয়, বেশিরভাগই ভিন্নধারার ছবি হয়। বাণিজ্যিক ধারার ছবির দর্শকরা সেসব পছন্দ করতে চান না। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের লেখা উপন্যাস ‘গাঙচিল’ নিয়ে নির্মাতা নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামূল বানাচ্ছেন তার নতুন ছবি।

এই ছবিটি পুরোপুরি বাণিজ্যিক ধারার হবে বলে জানান নির্মাতা নেয়ামূল। ছবিতে অভিনয় করছেন ফেরদৌস এবং পূর্ণিমা। দীর্ঘদিন পর এ ছবির মাধ্যমে আবার জুটি বেঁধে কাজ করতে যাচ্ছেন তারা।

‘গাঙচিল’ ছবিতে একজন সাংবাদিকের (সাগর) চরিত্রে অভিনয় করছেন চিত্রনায়ক ফেরদৌসকে। আর পূর্ণিমা অভিনয় করছেন (মোহনা) এনজিও কর্মী হিসেবে। ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে নোয়াখালী জেলার গাঙচিল কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার ৮ নং চর এলাহি ইউনিয়নে এর শুটিং শুরু হয়েছে চলবে ১২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

এদিকে ছবির শুটিং করতে গিয়ে দূর্ঘটনার কবলে পড়েছেন চিত্রনায়ক ফেরদৌস ও চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা। আজ রবিবার সকাল ১০টা নাগাদ এ দূর্ঘটনা ঘটে। ছবির পরিচালক নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামূল ফেরদৌস-পূর্ণিমার গুরুতর আহত হওয়ার খবর জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে ফেরদৌস-পূর্ণিমাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। বিকালে তাদেরকে নোয়াখালী সদরে নেওয়া হবে। শরীরের আঘাত কতটা গুরুতর সেটা জানার জন্য দুজনকে এক্স-রে করা হবে।

নায়ক ফেরদৌস নিজেও তার দুর্ঘটনায় কথা জানিয়ে বলেছেন, পূর্ণিমা মোটর সাইকেল চালিয়ে শট দিচ্ছিল। আমি পেছনে বসা ছিলাম। চলন্ত অবস্থায় মোটর সাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দু’জনেই পড়ে যাই। আমি ও পূর্ণিমা দুজনে প্রচণ্ড ব্যথা পেয়েছি। আমার লেগেছে সোল্ডারে আর পূর্ণিমার পায়ে। দু’জনেরই খুব ব্যথা হচ্ছে। পূর্ণিমার পা ফুলে গেছে। হাসপাতালে যাচ্ছি।

দুপুর ২টার দিকে নির্মাতা জানান, ফেরদৌস-পূর্ণিমা দুজনেই বিশ্রামে আছেন। বাকিদের নিয়ে শুটিং চলছে। নির্মাতা নেয়ামূলের সঙ্গে আলাপ করে জানা যায়, দুজনেই সিরিয়াস ভাবে আহত হয়েছেন। তাদের শরীরের একাধিক স্থানে ক্ষত হয়েছে।