একমাত্র ‘ভাসানীর পথেই’ গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা সম্ভব: দুদু

মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২২, ২০১৯

ঢাকা: দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে একমাত্র মাওলানা ভাসানীর পথ অনুসরণ করেই গণতন্ত্রকে পুনঃপ্রতিষ্ঠা করা সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক শামসুজ্জামান দুদু।

তিনি বলেছেন, ‘মাওলানা ভাসানীকে আমরা জানতে পারলে আমরা গণতন্ত্রকে জানতে পারবো। মাওলানা ভাসানীকে যদি আমরা জানতে পারি তাহলে লড়াই কিভাবে করতে হয় সেটা জানতে পারবে। হতাশা থেকে কিভাবে মুক্ত হতে হয়, কিভাবে উঠে দাঁড়াতে হয় সেটা জানতে পারবো।’

মঙ্গলবার (২২ জানুয়ারি) বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লা‌বের কনফারেন্স লাউঞ্জে ভাসানী অন‌ুসারী প‌রিষ‌দের উদ্যো‌গে মজলুম জননেতা মাওলানা ভাসানী’র স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তি‌নি এসব কথা ব‌লেন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কড়া সমালোচনা করে শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ‘এরকম ফাজলামি মার্কা নির্বাচনের সময় তিনি (মাওলানা ভাসানী) বেঁচে থাকলে সিংহের গর্জনে এসব শিয়ালের দল কোথায় পালাতো তার হদিস থাকতো না। কৃষি ক্ষেত্রে শ্রমিকদের ক্ষেত্রে এমনকি এই দেশের সাংবাদিকতার জন্মও দিয়েছেন ভাসানী। কী করেননি তিনি?’

মাওলানা ভাসানীর স্মৃতিচারণ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘কোন দিক থেকে শুরু করব কিভাবে শেষ করব সেই দিকের দিশা খুঁজে নেয়ার নামই মাওলানা ভাসানী। পাকিস্তানের প্রথম বিরোধী দল গঠন করেছিলেন মাওলানা ভাসানী। যেটির নাম ছিল আওয়ামী মুসলিম লীগ। বাংলাদেশেরও প্রথম বিরোধী দল গঠন করেছিলেন মাওলানা ভাসানী। যার নাম ছিল ন্যাপ ভাসানী। তারপরে গঠন হয় আজাদী লীগসহ অনেকগুলো দল।’

দুদু বলেন, ‘মাওলানা ভাসানী প্রগতিশীল আন্দোলন করার ফলে ধর্মান্ধ গোষ্ঠী তার ওপর আক্রমণ করেছিল। মাওলানা ভাসানী এদেশে সমাজতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। এই সমাজতন্ত্রের নামটা যখন বিপজ্জনক তখন তিনি সমাজতন্ত্রের সঙ্গে ইসলামী জোট করেছিলেন। মানে ইসলামী সমাজতন্ত্র। নির্ভেজাল জাতীয়তাবাদী ছিলেন তিনি।’

তিনি বলেন, ‘মাওলানা ভাসানী সেই পুরুষ বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধের সময় যার ছোট্ট কুঁড়ে ঘরটাও ধ্বংস করে দিয়েছিল পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী। অথচ এই পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী বাংলাদেশের কারো কারো বাড়ি পাহারা দিয়েছে, এমনকি টাকাও দিয়েছে, গাড়িতে করে ঘুরিয়েছে।’

ভাসানী অনুসারী পরিষদের চেয়ারম্যান ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও উপ‌স্থিত ছি‌লেন- জাতীয় পা‌র্টি (জাফর) মহাসচিব মোস্তফা জামাল হয়দার, ভাসানী অনুসারী প‌রিষ‌দের মহাস‌চিব শেখ র‌ফিকুল ইসলাম বাবলু,রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।