সুন্দরীদের মুখে আগুন জ্বালিয়ে ‘ফায়ার থেরাপি’!

মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১১, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বলিরেখা ‘পুড়িয়ে ফেলতে’ মুখে আগুন জ্বালাচ্ছেন সুন্দরীরা! ভিয়েতনামের হো চি মিন সিটির স্পা ও বিউটি পার্লারগুলিতে এই মুহূর্তে ট্রেন্ড ‘ফায়ার থেরাপি’।

এই সংক্রান্ত এক ভিডিও ইউটিউবে প্রকাশ পেলে তা মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায়। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, এক মহিলার মুখে প্রথমে তোয়ালে চাপা দিচ্ছেন থেরাপিস্ট। তার পরে সেই তোয়ালের উপরে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। খানিকক্ষণ পরে সেই তোয়ালেকে আর একটি তোয়ালে চাপা দিয়ে আগুন নিবিয়ে ফেলা হচ্ছে।

জানা যাচ্ছে, হো চি মিন সিটির এই সব স্পা ও বিউটি পার্লারগুলি এই ‘থেরাপি’ চালু করেছে ‘চিকিৎসা’ হিসেবে। এই কেন্দ্রগুলি নাকি এই বিষয়ে লাইসেন্স প্রাপ্ত।

তাদের দাবি, এই ‘চিকিৎসা’-র ফলে মুখের বলিরেখা দূর হয়, মুখে বয়সের ছাপ পড়ে না। তোয়ালে অ্যালকোহলে ভিজিয়ে মুখ চাপা দেওয়া হয় প্রথমে। তার পরে তাতে আগুন ধরানো হয়। ৩০ সেকেন্ড থেকে ১ মিনিট পরে আর একটি তোয়ালে চাপা দিয়ে সেই আগুন নিবিয়ে ফেলা হয়।

কেবল ত্বকের পুনর্নবীকরণ নয়, এই থেরাপিতে নাকি মাথাব্যথা, পেশির ব্যথা, অনিদ্রা ও হজমের গোলমালও দূরীভূত হয়। অন্তত তেমনটাই দাবি থেরাপিস্টদের। কিন্তু বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে চিকিৎসকরা শঙ্কা প্রকাশ করেছেন এই থেরাপি নিয়ে।

তাদের মতে, মুখমণ্ডলের ত্বক খুবই সংবেদনশীল। আগুনের সাহচর্যে তার ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা যথেষ্ট। তার উপরে চোখে আগুন লেগে গিয়ে বিপদ ঘটার সম্ভাবনাও রয়েছে এই থেরাপিতে।