যৌতুক লোভী স্বামীর দেড় বছর কারাদণ্ড

রবিবার, ডিসেম্বর ৯, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : যৌতুকের দাবীতে স্ত্রীকে মারধর করে তাড়িয়ে দেয়ার অপরাধে যৌতুক লোভী স্বামীকে দেড় বছর কারাদণ্ড সহ ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ২ মাস কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। ৯ ডিসেম্বর রোববার বরিশালের অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মারুফ আহমেদ বিচারাধীন আদালত আসামীর উপস্থিতিতে এ দন্ড দেন।

আদালত সূত্র জানায়,সাজাপ্রাপ্ত আসামীর নাম ছালাউদ্দিন আহমেদ ।তিনি বরিশাল নগরীর কলাডেমা মীরাবাড়ি এলাকার মৃত্যু আব্দুল বারেক বেপারীর ছেলে। তার বিরুদ্ধে ২০১৬ সালের ১৮ ডিসেম্বর চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন স্ত্রী রোকসানা আক্তার । অভিযোগে তিনি বলেন ২০১৫ সালের ১৫ নভেম্বর ছালাউদ্দিনের সাথে তার বিয়ে হয়।

বিয়ের পরে কিছুদিন যেতে না যেতেই তার লোভী স্বামী যৌতুকের জন্য বেপরোয়া হয়ে ওঠে। তার কাছে টাকা যৌতুক দাবী করে নির্যাতন চালায় । তাকে একলাখ টাকা দেয়া হয়। এতেও তিনি ক্ষান্ত হতে পারেনি।

পুনরায় একলাখ টাকা যৌতুক দাবী করে। দাবী পূরনে ব্যর্থতা প্রকাশ করলে তাকে এক কাপড়ে তাড়িয়ে দেয়। ২০১৬ সালের ১২ ডিসেম্বর রোকসানার বাবার বাড়ি বরিশাল নগরীর সাগরদী কোলচর এলাকায় এসে দাবীকৃত যৌতুক চায়।

অপারগতা প্রকাশ করলে তালাক দেয়ার হুমকি দিয়ে চলে যায়। এভাবে মামলা দায়ের হলে রাষ্ট্রপক্ষ ৪ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যদানে সক্ষম হয়।সাক্ষী প্রমাণে দোষী সাব্যস্ত হলে আদালত ছালাউদ্দিনকে ওই দন্ড দেন।রায় শেষে তাকে সাজাভোগে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়।