অরিত্রির নামে ভাস্কর্য নির্মানের দাবীতে বরগুনায় মানববন্ধন

বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৬, ২০১৮

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি : ভিকারুননিসা নূন স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থী অরিত্রি অধিকারীর আত্মহত্যার জন্য দায়ী শিক্ষকদের বিচার দাবী, বীরপ্রতীক তারামন বিবির নামে স্কুলের নাম পরিবর্তন ও স্কুল ক্যাম্পাসে অরিত্রির ভাস্কর্য নির্মানের দাবীতে বরগুনায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে সম্মিলিত নাগরিক সমাজ। বৃহস্পতিবার বেলা দেড়টার দিকে বরগুনা প্রেসক্লাবের সামনে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

কর্মসূচি চলাকালে বক্তব্য রাখেন, বরগুনা প্রেসক্লাবের সভাপতি আনোয়ার হোসেন মনোয়ার, বরগুনা জেলা নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ কমিটির সভাপতি এডভোকেট মো. আনিসুর রহমান, সম্মিলিত নাগরিক সমাজের মো. হাসানুর রহমান ঝন্টু, বরগুনা জেলা মহিলা পরিষদের সভাপতি নাজমা বেগম, পরিবেশ আন্দোলনের সভাপতি সুখরঞ্জন শীল, জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান হোসনেয়ারা চম্পা, জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সহ-সভাপতি চিত্তরঞ্জন শীল, বরগুনা মানবাধিকার জোটের সভাপতি এডভোকেট সঞ্জীব দাস, আদর্শ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইসরাত জাহান মোনালিসা, ব্যাচ ৮৫’র সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মুনিরুজ্জামান মুনির, এডভোকেট সফিকুল ইসলাম নেসার, জেলা এনজিও ফোরামের সহ-সভাপতি শামসুদ্দিন খান, বুড়িরচর এ.এম.জি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সোহেলী পারভীন ছবি, হোমিওপ্যাথি কলেজের অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ, অরিত্রির ফুফাত ভাই প্রদীপ কুমার মিত্র, মেস্তাফিজুর রহমান বাচ্চু, সুনাম দেবনাথ, বরগুনা সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রাইমু জামান, আদর্শ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মুনিয়া আক্তার ও তাহেরা আক্তার।

কর্মসূচি পরিচালনা করেন, বরগুনা জেলা নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন কামাল। ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ বাবাকে ঢেকে অপমান করায় নবম শ্রেণির ছাত্রী বরগুনার কুমড়াখালী গ্রামের দিলীপ অধিকারীর মেয়ে অরিত্রি অধিকারী গত সোমবার গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।