২০১৯ সালেই ওপক ছাড়ছে কাতার

সোমবার, ডিসেম্বর ৩, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ওপেক ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছে কাতার। কাতারের জ্বালানিমন্ত্রী সাদ শেরিদা আল কাবি সোমবার এ ঘোষণা দিয়েছেন। ২০১৯ সালের শুরু থেকেই এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। খবর আলজাজিরা।

অর্গানাইজেশন অব পেট্রোলিয়াম এক্সপোর্টিং কান্ট্রিজ বা ওপেক হলো তেল রফতানিকারক দেশগুলোর সংগঠন। বিশ্বব্যাপী অর্ধেকেরও বেশি তেল উৎপাদন করে থাকে ওপেকভূক্ত দেশগুলো।দেশেটির তেল কোম্পানি কাতার পেট্রোলিয়ামের অফিসিয়াল টুইটার অ্যাকাউন্টে দেওয়া এক পোস্টের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

উপসাগরীয় অঞ্চলের দেশগুলোর মধ্যে কাতার হলো প্রথম দেশ যারা অর্গানাইজেশন অব পেট্রোলিয়াম এক্সপোর্টিং কান্ট্রিজ বা ওপেক ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছে ।

জ্বালানিমন্ত্রী সাদ শেরিদা আল কাবি জানিয়েছেন, জ্বালানি উত্তোলন বাড়ানোর পরিকল্পনা করছে কাতার। ফলে ওপেক ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, এই সিদ্ধান্ত প্রাকৃতিক গ্যাস শিল্পের উন্নয়নে কাতারি প্রচেষ্টার প্রতিফলন। বছরে তরল প্রাকৃতিক গ্যাসের উৎপাদন ৭৭ মিলিয়ন টন থেকে বাড়িয়ে ১১০ মিলিয়ন টনে উন্নীত করার পরিকল্পনা বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

এর আগে ২০১৭ সালের ৫ জুন সৌদি জোটের কাতারবিরোধী অবরোধের ঘটনায় সৃষ্ট রাজনৈতিক সংকটে জ্বালানি তেলের বাজার নিয়ে উদ্বেগ তৈরি হয়। কেননা, বিশ্বের শীর্ষ তরল প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) রফতানিকারক দেশ কাতার। দেশটির মাথাপিছু আয় ১ লাখ ২৭ হাজার ৬৬০ মার্কিন ডলার, যা দেশটিকে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ধনী দেশে পরিণত করেছে।

উল্লেখ্য, ১৯৬০ সালে ওপেক প্রতিষ্ঠার এক বছর পর কাতার ওপেকে যোগদান করেছিল।