বিরোধীজোটের ৮০জনের প্রার্থীতা বাতিল করে আ’লীগকে এগিয়ে রাখল ইসি: ২০ দল

সোমবার, ডিসেম্বর ৩, ২০১৮

ঢাকা : মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটের ৮০ জনের প্রার্থিতা বাতিল করা হয়েছে জানিয়ে এলডিপি নেতা অলি আহমেদ বলেছেন, ক্ষমতাসীনদের জয়ের পথ প্রশ্বস্ত করতেই নানা অজুহাতে তাদের নির্বাচন থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এভাবে চলতে থাকলে ২০ দলের শেষ পর্যন্ত নির্বাচনী লড়াইয়ে থাকা হবে কি না, তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন তিনি।

রোববার মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ দলটির অনেক নেতার মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যায় দুর্নীতির মামলায় কারাদণ্ড ও ঋণ খেলাপের দায়ে।

যাচাই-বাছাই শেষে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে বৈঠকে বসেন ২০ দলীয় জোটের নেতারা।

বৈঠকের পর জোটের প্রধান সমন্বয়ক অলি আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, “আজকে যে বাছাই ছিল সেখানে বেগম খালেদা জিয়াসহ ৮০ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। আমি বলব, এটা বিরোধী দলকে বের করে দেওয়া হয়েছে, ভ্যাকেট করে দেওয়া হয়েছে।

“অর্থাৎ তাদের (আওয়ামী লীগ) জয়লাভ করার পথটা এগিয়ে রেখেছে। এভাবে হলে বিরোধী দলে আমরা যারা আছি, আমাদের পক্ষে শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে টিকে থাকা হয়ত সম্ভব হবে না।”

তিনি বলেন, “দেখুন আমরা তো নির্বাচন করতে চাই, নির্বাচনে আছি। এখন প্রার্থী যদি না থাকে তাহলে কাকে নিয়ে নির্বাচন করবেন? ইতোমধ্যে তো ৮০ জন নেই।

“সরকার তো কাউকে ঘরে থাকতে দিচ্ছে না। প্রতিদিন বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। নির্বাচনের পরিবেশ মোটেও নাই, লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নাই। এভাবে ভয়ভীতি ও গ্রেপ্তার হলে আপনারাই বলুন, আমরা কীভাবে নির্বাচন করব। এ ব্যাপারে আমরা সরকারের কাছ থেকে স্পষ্ট ঘোষণা চাই।”

এই সময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, “কর্ণেল অলি সাহেব বলেছেন, আমরা নির্বাচন করতে চাই, নির্বাচনে আছি। নির্বাচন করব ইনশাল্লাহ।