মাহমুদউল্লাহও বলছেন- সাকিবের এক মন্ত্রেই উজ্জীবিত বাংলাদশ

শনিবার, ডিসেম্বর ১, ২০১৮

স্পোর্টস ডেস্ক: গত জুলায়ের কথা। মাত্র কয়েক মাসের ব্যবধান। এরই মধ্যে সাদা পোশাকে ঔজ্জ্বল্য ছড়াতে শুরু করেছে বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ সেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৪ মাস আগে উইন্ডিজ সফরে গিয়ে প্রথম টেস্টে মাত্র ৪৪ রানে অলআউটের লজ্জা পেয়েছিল বাংলাদেশ। ২ ম্যাচ টেস্ট সিরিজে হয়েছিল ধবলধোলাই। এবার বুঝি সেটা কড়ায়গণ্ডায় মিটিয়ে দেয়ার পালা।

তাইতো সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ শুরুর আগে সাকিব সতীর্থদের উদ্দেশ্যে একটি কথাই বলেছিলেন- ‘যেভাবে হেরেছি, সেভাবেই হারাতে হবে’। সাকিবের এই কথার মধ্যে কতটা ঝাজ ছিল সেটি মেপে নেয়া যাবে চট্টগ্রাম টেস্টে টাইগারদের পারফরম্যান্স দেখলেই। আর ঢাকা টেস্ট! এখানে তো মহানাটকীয়তার জন্ম দিয়ে বহু রেকর্ডে ভাঙন ধরিয়েছে সাকিব-মিরাজরা।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের করা ৫০৮ রানের জবাবে ২৯ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে মহাপতনের ধ্বনি শুনছে ক্যারিবিয়রা। ৫ উইকেটে ৭৫ রানে দ্বিতীয় দিন শেষ করেছে তারা। ফলোঅন এড়াতে এখনও করতে হবে আরও ২৩৪ রান। ক্রিকেট গৌরবময় অনিশ্চয়তার খেলা বটে। তবে মিরপুর টেস্টের বর্তমান পরিস্থিতিতে সফরকারী দলের ব্যাটসম্যানদের জন্য কাজটা কতটা কঠিন হবে তা এখন মাপার সময় এসেছে।

চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে ৪৪ রানে ৫ উইকেট হারিয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। বাংলাদেশের বিপক্ষে সবচেয়ে কম রানে প্রথম ৫ ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে ফেলার রেকর্ডটা আজ আবার নতুন করে লিখতে হলো।

এর মধ্যে আজ তো বাংলাদেশ প্রথম পাঁচের সবাইকে বোল্ড করে সাজঘরে পাঠিয়েছে। ১২৮ বছর পর টেস্ট ক্রিকেট দেখল এমন ঘটনা। এর আগে ব্যাটিংয়ে ১১ ব্যাটসম্যানের প্রত্যেকে দুই অঙ্ক ছুঁয়েছে। ২৩৩১ টেস্টে এমন ঘটনা এ নিয়ে ঘটল মাত্র ১৪ বার।

দিন শেষে ক্যারিবিয়ানদের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে এলেন জোমেল ওয়ারিক্যান। তবে কথায় মনে হলো- মানসিকভাবে বাংলাদেশ সিরিজটা ২-০ করেই ফেলেছে। বড় অঘটন না হলে বাস্তবতাও এখন ওয়ারিক্যানের সঙ্গে দ্বিমত হবে না।

৮ বছর পর টেস্ট ক্যারিয়ারে উপর্যুপরি দুটি সেঞ্চুরির দেখা পাওয়া মাহমুদউল্লাহ অবশ্য আক্রমণাত্মক শব্দ প্রয়োগের পাত্র নন। টাইগাদের হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা এই সেঞ্চুরিয়ানের কথাগুলোও ছিল তাই এরকম- ‘যখন টেস্ট সিরিজটা শুরু হয়, তখন সাকিব একটা কথা বলেছিল: “আমার মনে হয় এটা আমাদের মনে রাখা উচিত ওখানে আমরা কীভাবে হেরেছিলাম। ওই হার দুটো মনে রাখলে, এখানে আমরা উজ্জীবিত হতে পারব।” হারটা ভুলে গেলে ঘুরে দাঁড়ানোও কঠিন। সাকিবের ওই কথাগুলো আমাদের দারুণভাবে উজ্জীবিত করেছিল বলে আমি ব্যক্তিগতভাবে বিশ্বাস করি।’

সাকিবের সেই মন্ত্র কাজে লাগিয়ে চট্টগ্রামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাত্র আড়াই দিনেই টেস্ট জিতেছে বাংলাদেশ। এবার সফরকারী শিবিরও হয়তো গালে হাত ঠেকিয়ে ভাবসে বসেছে- মিরপুর টেস্ট চার দিনের নাগাল পাবে তো! না পেলেও অবাক হওয়ার কিন্তু কিছু থাকবে না। কারণ, বর্তমান সিচ্যুয়েশনে ম্যাচটা মানসিকভাবে বাংলাদেশ জিতেই নিয়েছে বলা যায়।