হ্যাঁ শোনার পর দেরি করেননি রণবীর’

শুক্রবার, নভেম্বর ৩০, ২০১৮

বিনোদন ডেস্ক : দীপিকা পাড়ুকোনকে বিয়ে করতে বহু দিন থেকেই রেডি ছিলেন রণবীর সিং। শুধু একটা ‘হ্যাঁ’ শোনার অপেক্ষায় ছিলেন। তাতেই কেটে গিয়েছে বছর তিনেক। হ্যাঁ শোনার পর আর দেরি করেননি রণবীর।

এই তো দু’সপ্তাও হয়নি, দীপিকা পাড়ুকোনের সঙ্গে বিয়েটা সেরে নিয়েছেন। বেঙ্গালুরুর পর মুম্বাইতে ফের তাদের রিসেপশন। তবে এরই ফাঁকে বেশ খোলামেলা ভাবে জানিয়ে দিলেন রণবীর—দীপিকার জন্য তিনি অপেক্ষা করছিলেন। বহু দিন ধরেই। বিয়ের জন্যও প্রস্তুতও ছিলেন!

তবে কি রণবীরকে বিয়ে করতে রাজি ছিলেন না দীপিকা? প্রশ্নটা উঠতেই পারে। তবে সে সমস্ত কথাই খোলসা করছেন রণবীর। কে না জানে, দু’জনের দেখাশোনার শুরুটা ফিল্মি সেটে। বড় পর্দায় সেই প্রথম একসঙ্গে। ধীরে ধীরে ভাললাগা, কাছে আসা। সেটা ছিল সঞ্জয় লীলা ভন্সালীর ‘গোলিয়োঁ কি রাসলীলা রাম-লীলা’। সালটা ২০১৩। এর পর অনেক জল গড়িয়েছে। তবে তাঁদের সম্পর্কে ছেদ পড়েনি; বরং তা আরো গাঢ় হয়েছে।

তবে এত দিন বিয়েটা করছিলেন না কেন? সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে রণবীরের সাফ মন্তব্য, “আমি তো আগে থেকেই বিয়ের জন্য রাজি ছিলাম। শুধু দীপিকা রাজি হওয়ার জন্য অপেক্ষা করছিলাম।”

দীপিকার আগে বেশ কয়েক জনের সঙ্গে নাম জড়িয়েছে রণবীরের। তবে তাঁদের সঙ্গে ডেটিং করলেও দীপিকাই যে তাঁর জীবনসঙ্গী হবেন, তা-ও জানতেন তিনি।

এমনটা জানিয়েছেন রণবীর। বলেছেন, “আমি বেশ ভাল ভাবেই জানতাম, এঁকেই বিয়ে করতে চাই। আমার সন্তানদের মা-ও হবেন এই মহিলাই।” ঠিক কত দিন ধরে এমনটা ভেবে রেখেছিলেন রণবীর? তা-ও খোলসা করেছেন তিনি।

তার কথায়, “প্রায় তিন বছর ধরে দীপিকাকে বিয়ে করার কথাটা সিরিয়াসলি ভাবছি।” তবে তা নিয়ে তাড়াহুড়ো করেননি। বরং অপেক্ষা করেছেন।

রণবীর বলেন, “আমাদের সম্পর্ক ছ’মাসও গড়ায়নি, তখন থেকেই জানতাম, এই সেই মানুষটি! আমি শুধু অপেক্ষা করছিলাম। দীপিকাকে বলেও ছিলাম, ‘যে মুহূর্তে তুমি রাজি হবে, আমরা বিয়ে করব।’ এই সম্পর্কটা সে ভাবেই এত দিন ধরে আগলে রেখেছি।”