লাঙল না পেয়ে ধানের শীষের আশায় ‘ঘরের ছেলে ঘরে’

বুধবার, নভেম্বর ২৮, ২০১৮

লালমনিরহাট: লালমনিরহাট-২ (কালীগঞ্জ-আদিতমারী) আসনে দলীয় মনোনয়ন না পাওয়ায় বিএনপিতে যোগ দিয়েছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) কেন্দ্রীয় সমাজ কল্যাণবিষয়ক সম্পাদক রোকন উদ্দিন বাবুল। এর আগে তিনি বিএনপির রাজনীতিই করতেন। তার এই যাওয়া-আসাকে অনেকে ‘ঘরের ছেলে ঘরে’ ফিরে আসা হিসেবে দেখছেন। রাজধানীতে সোমবার রাত আড়াইটার দিকে লালমনিরহাট জেলা বিএনপির সভাপতি ও রংপুর বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল হাবিব দুলুর হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে তিনি বিএনপিতে যোগ দেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন লালমনিরহাট আসনের মনোনয়নপ্রত্যাশী ও জেলা বিএনপির সদস্য ব্যারিস্টার হাসান রাজিব প্রধানসহ অন্য নেতারা।

জানা গেছে, গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়ন নিয়ে জেলা সভাপতি আসাদুল হাবিব দুলুর সঙ্গে বিরোধ বাধে রোকন উদ্দিন বাবুলের। একপর্যায়ে মনোনয়ন না পাওয়ায় তিনি বিএনপি থেকে পদত্যাগ করে স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচন করে হেরে যান। পরে বিশাল জনসভা করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদের হাতে ফুলের তোড়া দিয়ে জাপায় যোগ দেন। ওই জনসভায় রোকন উদ্দিন বাবুলকে লালমনিরহাট-২ আসনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী ঘোষণা দেন এরশাদ। পার্টিতে বড় পদও পান এই নেতা। কিন্তু মহাজোটের মনোনয়ন পান সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ। এতে জাতীয় পার্টি ছেড়ে মনোনয়নের আশায় আবার বিএনপিতে যোগদান করলেন তিনি।

রোকন উদ্দিন বাবুল বলেন, লালমনিরহাট-২ (কালীগঞ্জ-আদিতমারী) আসনে বিএনপি থেকে আমাকে মনোনয়ন দেওয়া হবে। বিষয়টা নিয়ে ঢাকায় আমার সঙ্গে আলোচনা চলছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন না পাওয়ার কারণে স্থানীয় কর্মী-সমর্থকদের অনুরোধেই আমি দল ছেড়েছি।