ইমার্জিং নেশনস কাপ

পাকিস্তানে দল পাঠাচ্ছে না ভারত

বুধবার, নভেম্বর ২৮, ২০১৮

স্পোর্টস ডেস্ক: মাঠ ও মাঠের বাইরে ভারত-পাক দ্বন্দ্ব অব্যাহত। তাই ইমার্জিং নেশনস কাপ খেলার জন্য ভারতীয় দলকে পাকিস্তানে পাঠানো হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিল বিসিসিআই।

২০০৮ সালে শ্রীলঙ্কার টিম বাসে সন্ত্রাসবাদী হামলার পর বদলে গিয়েছিল পাকিস্তানের খেলার দুনিয়ার চেহারাটা। তারপর থেকে দীর্ঘদিন আর কোনও আন্তর্জাতিক ম্যাচ আয়োজন করা যায়নি সে দেশে। যে কারণে ২০০৯ থেকেই পাকিস্তানের ঘরের মাঠ হয়ে ওঠে আবু ধাবি। সম্প্রতি জিম্বাবুয়ের মতো দল সেখানে গেলেও এখনও প্রথম সারির কোনও দেশ পাকিস্তানের মাটিতে সিরিজ খেলতে রাজি নয়।

সে তালিকায় রয়েছে ভারতও। কিন্তু এবার বড়সড় একটি টুর্নামেন্ট আয়োজনের সুযোগ পেয়েছে পাকিস্তান। নিজেদের প্রমাণ করার এমন সুবর্ণ সুযোগ হাতছাড়া করতে চায় না পাকিস্তান। তাই এই টুর্নামেন্টে চূড়ান্ত নিরাপত্তার বন্দোবস্ত করতে চলেছে পাক ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। তা স্বত্ত্বেও পাকিস্তানে দল না পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিসিআই। তবে কি টুর্নামেন্টে খেলবে না ভারত? না, তেমনটা নয়।

আসলে শুধু পাকিস্তানে নয়, শ্রীলঙ্কাতেও হবে সিরিজের একাংশ। আর সেখানেই খেলবে টিম ইন্ডিয়া। পাকিস্তানের গ্রুপে রয়েছে বাংলাদেশ, সংযুক্ত আরব আমিরশাহী এবং হংকং। করাচির ন্যাশনাল স্টেডিয়াম এবং সাউথএন্ড ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হবে তিনটি করে ম্যাচ। অন্য গ্রুপে ভারতের সঙ্গে রয়েছে শ্রীলঙ্কা, আফগানিস্তান। এই গ্রুপটি খেলবে কলম্বোয়। সিরিজের ফাইনালও অনুষ্ঠিত হবে শ্রীলঙ্কার রাজধানীতেই। তাই এই টুর্নামেন্টের জন্য পাকিস্তানে পা রাখবে না ভারতীয় দল। পাক ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) জানায়, বিসিসিআইয়ের সঙ্গে এ নিয়ে কথাও হয়েছে। কিন্তু কোনও পরিস্থিতিতেই তারা প্রতিবেশী রাষ্ট্রে দল পাঠাতে রাজি নয়। তবে পিসিবির আশ্বাস, সফরকারী সমস্ত দলগুলির জন্য কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হবে।

ভারতীয় বোর্ডের কথাতেই স্পষ্ট, দুই দেশের মধ্যে শান্তিপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে না উঠলে ভারত কখনওই পাকিস্তানের মাটিতে বা তাদের সঙ্গে কোনও দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলবে না। তবে ইমার্জিং নেশনস কাপে ফের ভারত-পাক মুখোমুখি হয় কিনা, সেদিকেই তাকিয়ে ক্রিকেটপ্রেমীরা।