ড.কামালের প্রার্থী না হওয়ার কারণ সময়মত প্রকাশ হবে: কাদের

বুধবার, নভেম্বর ২৮, ২০১৮

ঢাকা; গণফোরাম ও ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেনের জাতীয় নির্বাচনে প্রার্থী না হওয়ার কারণ সময়মত প্রকাশ হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ‘কামালের প্রার্থী না হওয়ার কারণ জানি না। তবে কারণটা সময়মত নিশ্চয়ই প্রকাশ হবে। ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে জিতলে কে হবেন প্রধানমন্ত্রী এটাও কিন্তু আজও জানা জায়নি।’

বুধবার (২৮ নভেম্বর) ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

জঙ্গিবাদে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগ উঠা চট্টগ্রাম-৫ আসন থেকে এবার বিএনপির মনোনয়ন পাওয়া শাকিলা ফারজানা প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ঐক্যফ্রন্ট জামায়াতের মিশে গেছে। বিএনপি-জামায়াত জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষক বলেই তারা এ ধরনের প্রার্থীদের মনোনয়ন দেবে- এটাই তো স্বাভাবিক। এতে অবাক হওয়ার কিছুই নেই।’

বিভিন্ন স্থানে জোট-মহাজোটের প্রার্থী ঘোষণা করায় স্থানীয় নেতৃবৃন্দ মেনে নিচ্ছে না। এ ক্ষেত্রে প্রার্থী পরিবর্তনের কোনও সুযোগ রয়েছে কিনা? জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য ও জনমতে যিনি এগিয়ে আছেন তাকেই মনোনয়ন দেয়া হবে। তিনি জাতীয় পার্টির হোক বা যুক্তফ্রন্টের কিংবা ১৪ দলের। আমরা ইলেক্টেবল ও ইউনেবল প্রার্থীকেই মনোনয়ন দিচ্ছি।’

কাদের আরও বলেন, ‘মনোনয়ন দেয়ার আগে এবং এখনও আমরা প্রার্থীদের বিষয়ে জরিপ করছি। শরিক দলের কোনও প্রার্থীর জয়ের সম্ভাবনা কম মনে হলে আমরা তাদের বলবো। যারা জয় লাভ করবে তাদেরকেই মনোনয়ন দেয়া হবে।’

তিনি বলেন, ‘দলের নেতাকর্মীরা দলী প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছেন। খুব সহজে দলীয় প্রার্থীর বাহিরে গিয়ে কাজ করার মানসিকতাটা যুক্ত করা কষ্টকর। তারপরও আমাদের বিশ্বাস আমাদের পার্টির নেতাকর্মীরা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ রয়েছেন।’

নির্বাচনের আগে ১৫৪ জন সাবেক সেনা কর্মকর্তার আওয়ামী লীগে যোগদানের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘সাবেক সেনা কর্মকর্তাদের আওয়ামী লীগে যোগদানের বিষয়টি পজিটিভলি দেখছি। তারা তো মনোনয়ন চাননি।’