ফেডারেশন কার্যালয়েই নারী ক্রীড়াবিদকে ধর্ষণের অভিযোগ

মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৭, ২০১৮

ঢাকা: বাংলাদেশ ভারোত্তোলন ফেডারেশন কার্যালয়েই এক নারী ভারোত্তোলক ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগে উঠেছে। অভিযোগটি উঠেছে ভারোত্তোলক ফেডারেশনের অফিস সহকারী সোহাগ আলীর বিরুদ্ধে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ঘটনাটি প্রায় আড়াই মাস আগে ঘটেছে। তবে এতোদিন বিষয়টি পরিবারের পক্ষ থেকে সামনে আনা হয়নি । ভুক্তভোগী নারী ভারোত্তোলকের সম্মান ও আর্থিক দিক চিন্তা করে মামলাও করেননি পরিবারের কেউ।

তবে ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন ভারোত্তোলকের মামা নাজমুল হক। ওই ঘটনার পর থেকে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছেন ঐ ভারোত্তোলক। বর্তমানে জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটে তার চিকিৎসা চলছে।

জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের পুরোনো ভবনের চতুর্থ তলায় ভারোত্তোলন ফেডারেশনের কার্যালয়। গত ১৩ সেপ্টেম্বর সেখানেই নারী ভারোত্তোলককে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

অভিযুক্ত সোহাগ আলীকে এই কাজে সহযোগিতা করেছে মালেক নামের জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের এক কর্মচারি। এছাড়া আরেক নারী ভারোত্তোলকও এই কাজে সহযোগিতা করেছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ ভারোত্তোলন ফেডারেশনের সহ-সভাপতি উইং কমান্ডার মহিউদ্দিন আহমেদ জানান, ‘ঘটনার প্রায় ৩ মাস পর ধর্ষিতার মামা নাজমুল হক তার ভাগ্নি যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করায় আমরা উক্ত ঘটনার সত্যতা যাচাই ও সুষ্ঠু বিচারের জন্য তদন্ত কমিটি গঠন করে তাদের প্রতিবেদন দিতে বলেছি।’

অভিযোগ পাওয়ার পর ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে ফেডারেশন।