মিশরের লাক্সরেতে মমি ও ১০০০ মূর্তির খোঁজ

সোমবার, নভেম্বর ২৬, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সূর্যদেবের মন্দিরের জন্য বিখ্যাত মিশরের লাক্সরে উদ্ধার হয়েছে দুটি সারকোফ্যাগাস বা পাথরের কফিন। তারই একটি খুলতে খোঁজ মিলল মমির। আল আসাসিফ সমাধিক্ষেত্রে একটি প্রাচীন কবর খুঁড়ে কফিন দুটি উদ্ধার হয়। শুধু মমিই নয় অপর একটি কবর থেকে পাওয়া গেছে কাঠ, টিন ও মাটির তৈরি এক হাজার ছোট মূর্তি ও পাঁচটি রঙিন মুখোশ। খবর আনন্দবাজারের।

ভ্যালি অফ কুইন্স এবং ভ্যালি অফ কিংস-এর মাঝে অবস্থিত তিন হাজার বছরেরও বেশি পুরনো ওই সমাধিক্ষেত্র। প্রাচীন মিশরের রাজা ও রানিদের সমাধিস্থ করা হত লাক্সরের এই উপত্যকায়। রাজা-রানিদের সমাধিক্ষেত্রের মধ্যবর্তী অঞ্চলে সমাহিত করা হত রাজ্যের উচ্চপদস্থ কর্তাব্যক্তিদের।

মিশরের মিনিস্ট্রি অফ অ্যান্টিকুইটিজ-এর মতে উদ্ধার হওয়া সারকোফ্যাগাস দুটি মিশরের সপ্তদশ ও অষ্টাদশ রাজপরিবারের শাসনকালের। অর্থাৎ ত্রয়োদশ খ্রিষ্টপূর্বের। দ্বিতীয় রামেসিস ও তুতেনখামেন এই সময়কারই ফ্যারাও ছিলেন।

এক হাজারটি ছোট্ট মূর্তি যে কবর থেকে উদ্ধার হয়, সেটির আরও প্রাচীন। বিশেষজ্ঞদের মতে সেটি একাদশ ও দ্বাদশ রাজবংশের মমি বিশারদের।

কিন্তু উদ্ধার হওয়া মমিটি কার, তা নিয়েই রয়েছে ধন্দ। মিশরের অ্যান্টিকুইটিজ মন্ত্রক প্রথমে জানিয়েছিল সেটি থুয়া নামে এক মহিলার। কিন্তু পরে মন্ত্রকের মুখপাত্র জানান এখনও মমিটিকে শনাক্ত করার কাজ চলছে।