জনগণই পারবে সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে: হাফিজ

সোমবার, নভেম্বর ১৯, ২০১৮

ঢাকা : বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ বলেছেন, ‘জনগণের প্রতি আমাদের আস্থা আছে, জনগণই পারবে দেশে সুষ্ঠু মির্বাচনের ব্যবস্থা করতে।’

সোমবার (১৯ নভেম্বর) রাজধানীর গুলশান কার্যালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

মেজর হাফিজ বলেন, ‘দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, বিশেষ করে পুলিশ প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশন আওয়ামী লীগকে নির্বাচনে জিতাতে নগ্নভাবে হস্তক্ষেপ করবে, সুতরাং জনগণের কাছে আমাদের আহবান রইলো, জনগণেই পারবে দেশে সুষ্ঠু মির্বাচনের ব্যবস্থা করতে।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার চলছে। নির্বাচনকে ঘিরে প্রার্থীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। মনোনয়ন বোর্ডে সবাই ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসনের সামনে ওয়াদা করে এসেছেন যে ধানের শীষ প্রতীক যাকেই দেয়া হবে সকল প্রার্থী মিলে ঐক্যবদ্ধভাবে, সেই মনোনীত প্রার্থীর পক্ষে কাজ করবেন।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘এই নির্বাচনে বিএনপি যাচ্ছে আন্দোলনের অংশ হিসেবে। এখন পর্যন্ত নির্বাচনের মাঠে যে পরিস্থিতি; সুষ্ঠু নির্বাচনের কোনো সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে না। দেশের প্রশাসন এমন ভাবে রাজনীতিক করণ করা হয়েছে। সুষ্ঠু নির্বাচনের আশা প্রায় চিরহিত।’

সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ‘একমাত্র জনগণ আছে বিএনপির পক্ষে; যদি অল্প-স্বল্প সুষ্ঠু নির্বাচনও হয় বিএনপি বিপুল ভোটে জয় লাভ করবে।’

মেজর হাফিজ বলেন, ‘কিন্তু নির্বাচন কমিশনে এমন একজন নির্বাচন কমিশন বসিয়ে দেয়া হয়েছে; তারা সুষ্ঠু নির্বাচনের বিরুদ্ধে। নির্বাচন বানচাল করে একটি বানোয়াট ফলাফল উপস্থাপন করার লক্ষ্যে প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরাও নির্বাচনে জয়ের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করবো এবং দেশের গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনবো।’