৯০ হাজার মামলায় বিএনপির ২৫ লাখ নেতাকর্মী আসামি

রবিবার, নভেম্বর ১৮, ২০১৮

ঢাকা: বিগত ২০০৯ থেকে ২০১৮ পর্যন্ত বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে ৯০ হাজার ৩৪০টি। মামলায় আসামি করা হয়েছে ২৫ লাখ ৭০ হাজার ৫৪৭ জনকে এবং জেলহাজতে রয়েছে ৭৫ হাজার ৯২৫ নেতাকর্মী। এই ১০ বছরে হত্যা করা হয়েছে ১ হাজার ৫১২ জন বিএনপি নেতাকর্মীকে। এর মধ্যে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে ৭৮২ জনকে নেতাকর্মী হত্যা হয়েছে।

রবিবার (১৮ নভেম্বর) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশনে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) কাছে বিএনপির জমা দেয়া তালিকা থেকে এ তথ্য জানা যায়।

তালিকা জমা দেয় বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের মামলা ও তথ্য সংরক্ষণ কর্মকর্তা সালাহ উদ্দিন খানের নেতৃত্বে দুই সদস্যের এক প্রতিনিধি দল। দলের সহ-দফতর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু স্বাক্ষরিত এই প্রতিবেদন জমা দেয় বিএনপি।

তালিকা অনুযায়ী, ২০০৯ সাল থেকে চলতি বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে ৯০ হাজার ৩৪০টি। এতে আসামি করা হয়েছে ২৫ লাখ ৭০ হাজার ৫৪৭ জন বিএনপি নেতাকর্মীকে। মামলাগুলোর ভিত্তিতে এই সময়ে ৭৫ হাজার ৯২৫ জন নেতাকর্মী জেলহাজতে রয়েছেন।

এই সময়ে গুমের সংখ্যা ১ হাজার ২০৪ জন নেতাকর্মী। এর মধ্যে থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হেফাজত থেকে গ্রেফতার দেখানো হয় ৭৮১ জন এবং গুম ছিল ৪২৩ জন। বর্তমানে বিএনপি নেতাকর্মীদের গুমের সংখ্যা ৭২ জন।

এই ১০ বছরে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে আহত হয়েছেন ১০ হাজার ১২৬ জন বিএনপি নেতাকর্মী।

চলতি বছরের ১ সেপ্টেম্বর থেকে ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত ৭৫ দিনে বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে ৪ হাজার ৪২৯টি, এতে নাম উল্লেখ করে আসামি করা হয়েছে ১ লাখ ৯ হাজার ৪৪১ জনকে, অজ্ঞাত আসামি হিসেবে আদালতে চালান করা হয়েছে ৩ লাখ ২৫ হাজার ৫৩৪ জনকে। জ্ঞাত ও অজ্ঞাত আসামির সংখ্যা ৪ লাভ ৩৪ লাখ ৯৭৫ জন আসামি। এ ছাড়া গ্রেফতার করা হয়েছে ১০ হাজার ৪৭২ জনকে। এই ৭৫ দিনে বিএনপির ৫১৭ জনকে রিমান্ডে নেয়া হয়েছে।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত একটি চিঠিও ইসিতে জমা দেয় বিএনপি। চিঠিতে বলা হয়, নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ উপেক্ষা করে তফসিলের পর বিএনপি নেতাকর্মীদের গ্রেফতার অব্যাহত রেখেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। ইসির কাছে অভিযোগ করে বিএনপি বলেছে, প্রধানমন্ত্রী তাঁর প্রতিশ্রতি রক্ষা করেননি। তফসিল ঘোষণার পর থেকে এখন পর্যন্ত তাদের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার, মামলা ও হয়রানি অব্যাহত আছে।

৮ নভেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। পুনঃতফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ২৮ নভেম্বর। মনোনয়নপত্র বাছাই ২ ডিসেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ৯ ডিসেম্বর ও ভোট গ্রহণ ৩০ ডিসেম্বর।