নির্বাচন পেছানোর বিষয়ে যা বললেন ওবায়দুল কাদের

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৫, ২০১৮

ঢাকা : জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচন পেছানোর দাবিকে অযৌক্তিক ও অবান্তর আখ্যা দিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, একাদশ নির্বাচন আর পেছানোর পক্ষে নই আমরা। আওয়ামী লীগ নির্বাচন ১ মিনিটও পেছানোর পক্ষে নয়।

বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) বেলা ১১টায় সচিবালয়ে সেতু মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, আমরা নির্বাচন কমিশনকে অনুরোধ করব-আপনারা ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী নির্বাচন করুন। কারও কথায় নির্বাচন পেছানোর সুযোগ নেই।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, তিনি একজন সজ্জন ব্যক্তি। এখন দেখছি তিনিও মিথ্যা কথা বলেন। নয়াপল্টনে পুলিশের গাড়িতে ছাত্রলীগ আগুন দিয়েছে বলে যে অভিযোগ তিনি করেছেন, সেটা শুধু দেশবাসীই নয়, বিএনপির লোকজনও বিশ্বাস করবে না।

ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর কার্যালয়কে কেন্দ্র করে ওই এলাকায় রাস্তা বন্ধ করে মনোনয়ন কিনেছেন আওয়ামী লীগের নেতারা এবং মোহাম্মদপুরে আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে দুজন মারা গেছেন—সে ঘটনায় পুলিশ ও নির্বাচন কমিশন কোনো ভূমিকা নেয়নি। এ ব্যাপারে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ওই ঘটনা আর নয়াপল্টনের ঘটনা এক করে দেখার কোনো সুযোগ নেই। মোহাম্মদপুরের আদাবর এলাকার ওই ঘটনা আমরা তদন্ত করছি। এ নিয়ে প্রশ্ন করা অবান্তর।

এর আগে গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কো-চেয়ারম্যান এইচ টি ইমামের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল কমিশনের সঙ্গে বৈঠকে বসে। পরে সাংবাদিকদের এইচ টি ইমাম বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তারিখ যেন আর পেছানো না হয় সেই দাবি জানিয়েছে আওয়ামী লীগ। বিদেশিদের সুযোগ সুবিধা দেখে তারিখ পেছানো যৌক্তিক হবে না। নির্বাচন কমিশনকে আমরা পরিষ্কার বলেছি, ৩০ তারিখ পর্যন্ত নির্বাচন পিছিয়েছেন। আর নয়।