বিএনপির মনোনয়ন কিনলেন হেলাল খান, কনকচাঁপা ও মনির খান,বেবী নাজনীন ও শায়লা

সোমবার, নভেম্বর ১২, ২০১৮

ঢাকা: জাসসের পক্ষে সিলেট বিরানীবাজার-৬ আসনের মনোনয়নপত্র কিনলেন চিত্রনায়ক হোসেন খান হেলাল। এবং নীলফামারী-৪ আসনের মনোনয়ন কিনলেন কণ্ঠ শিল্পী বেবী নাজনীন। ফরিদপুর -৪ আসনের মনোনয়ন কিনলেন চিত্র নায়িকা শায়লা।
আজ সোমবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বিএনপির  সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী হাত থেকে মনোনয়ন সংগ্রহ করেন তারা।

বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র কিনলেন খ্যাতিনামা দুই কণ্ঠশিল্পী রুমানা মোর্শেদ কনকচাঁপা ও মনির খান। সোমবার (১২ নভেম্বর) বিএনপির মনোনয়নপত্র বিক্রি শুরুর দিনেই মনোনয়নপত্র কিনেন তাঁরা। এর আগে বিএনপি থেকে মনোনয়নপত্র কিনেন আরেক কণ্ঠশিল্পী বেবী নাজনীন।

সোমবার বেলা তিনটার দিকে মনোনয়নপত্র কিসেন কনকচাঁপা। তিনি সিরাজগঞ্জ-১ (কাজীপুর) থেকে বিএনপির হয়ে নির্বাচন করবেন। কনকচাঁপা দীর্ঘদিন ধরে এ এলাকায় নানা সামাজিক কর্মকান্ডে যুক্ত রয়েছেন।

অন্যদিকে বেলা সাড়ে তিনটার দিকে মনোনয়ন কিনেন কণ্ঠশিল্পী মনির খান। তিনি ঝিনাইদহ-৩ আসন থেকে নির্বাচন করবেন। মনির খান দীর্ঘদিন ধরে জাতীয়তাবাদী রাজনীতির সাথে যুক্ত। তিনি জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক সংসদের (জাসাস) এর সাথে দীর্ঘদিন ধরে যুক্ত। এছাড়া মনির খান বিএনপির জাতীয় নির্বাহিী কমিটির সদস্য।


হোসেন খান  হেলাল  বলেন, আমি সিলেটের ছেলে, বিরানীবাজার সিলেট-৬ আসন্ন থেকে আমি নির্বাচন করবো এবং এই নির্বাচন হবে অধিকার আদায়ের নির্বাচন, গণতন্ত্রের ফিরে পাবার নির্বাচন, খালেদা জিয়ার মুক্তির নির্বাচন, তারেক রহমানের ওপর সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের নির্বাচন। আমরা প্রত্যাশা করছি দেশের জনগণ ধানের শীষে ভোট দিতে অধির আগ্রহে বসে আছে। ইনশাল্লাহ আমরা জয় যুক্ত হবো, বাংলাদের সুশাসন ফিরে পাবে এবং বিএনপির চেয়ারপারসন খুব অল্প সময়ের মধ্যে আমাদের মাঝে ফিরে আসবে।


কণ্ঠ শিল্পী বেবী নাজনীন বলেন, গণতন্ত্র পূর্নরুদ্ধারের জন্য আমাদের এই নির্বাচনে যাওয়া। আমরা আশা করছি নির্বাচনের আগে বেগম খালেদা জিয়া মুক্ত হয়ে আসবেন।


চিত্র নায়িকা শায়লা বলেন, এই নির্বাচন হচ্ছে আমাদের আন্দোলনের অংশ। আমি আশা করি দল আমাকে মনোনয়ন দিবে। গত নির্বাচনে বিএনপি নির্বাচনে যায়নি, এবার নির্বাচনে যাওয়ায় সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যদি সুষ্ঠু শান্তি পূর্ণ নির্বাচন হয় তাহলে আমি বিপুল ভোটে জয় লাভ করবো। এই নির্বাচনে মাধ্যমে আমরা খালেদা জিয়াকে মুক্ত করব এবং দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করব।