মধ্যরাতে উপভোগ করতে চান সূর্যের আলো!

রবিবার, নভেম্বর ১১, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : গভীর রাত। চারিদিক নিস্তব্ধ। তবে সূর্য ডোবেনি। দিব্যি মাথার উপর জ্বলজ্বল করছেন সূর্য। তারমধ্যেই যদি অ্যাডভেঞ্চারে বেড়িয়ে পড়া যায়! এঁকেবেঁকে এগিয়ে যাওয়া যায় বরফে ঢাকা পাহাড়ের ঢাল বেয়ে! অসম্ভব মনে হলেও, এ বার তেমনটাই হতে চলেছে। সৌজন্যে সুইডেনের একটি হোটেল।

সুমেরু বৃত্তের কাছে অবস্থিত দেশগুলোতে গ্রীষ্মকালে সারারাত সূর্য দেখা যায়। বছরের ছ`মাস সূর্য অস্ত যায় না বলে নরওয়েকে নিশীথ সূর্যের দেশ বলা হয়। তবে সুইডেনও তেমনই একটি দেশ। সেই সুযোগই কাজে লাগিয়েছেন দুই বন্ধু জসি লিন্ডব্লম ও প্যাট্রিক স্ট্রমসেন।

নরওয়ে-সুইডেন সীমান্তের কাছে পাহাড়ের ঢালে ‘নিয়েকু মাউন্টেন ভিলা’ নামের স্কি লজ বানিয়েছেন তারা। মূলত অ্যাডভেঞ্চার প্রেমীদের জন্যই। ভ্রমণকারীদের জন্য আগামী বছর মার্চে খুলে দেওয়া হবে এটি।

স্কি না জানলেও চিন্তা নেই। প্রশিক্ষণ দেওয়ার লোক রয়েছে। তাতে পাহাড়ের উঁচু ঢালে হয়ত চড়া যাবে না। তবে বরফ ফুঁড়ে বেরিয়ে যাওয়ার অভিজ্ঞতা মিলবে। চাইলে স্কি করার বদলে স্নো বোর্ড বা স্লেজে চড়েও ঘুরে বেড়াতে পারবেন পর্যটকরা।

হোটেলটিতে মোট ১৪টি ঘর রয়েছে। তবে পৌঁছতে একটু ঝক্কি পোহাতে হবে। সুইডেনের রাজধানী স্টকহোম থেকে আকাশপথে প্রথমে কিরুনা যেতে হবে। সেখান থেকে সড়ক পথে ঘণ্টা দেড়েক।

তবে শুধু স্কি-ই নয়। সুস্বাদু খাবার, পানীয় এবং মিউজিকেরও বন্দোবস্তও থাকছে এখানে। প্রাতরাশে মিলবে বাড়িতে তৈরি পেস্ট্রি, মুসলি, দই এবং ডিমের একাধিক পদ। দুপুরে থাকবে পিকনিকের ব্যবস্থা। হেলিকপ্টারে চড়ে পাহাড় দর্শন করা যাবে।

তবে খরচ কত পড়বে? বিমান ও গাড়ি ভাড়া বাদ দিয়ে, তিনরাতের জন্য মাথাপিছু ৩ লাখ ৪০ হাজার টাকা। শুধু স্কি, খাওয়া দাওয়া এদিক ওদিক ঘোরাফেরাই নয়, ওই টাকায় পাওয়া যাবে বডি ম্যাসাজও।

তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার