পার্বতীপুরে ট্রেনে প্রাণ গেল স্বামী-স্ত্রীর

রবিবার, নভেম্বর ১১, ২০১৮

দিনাজপুর : দিনাজপুরের পার্বতীপুরে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে এসে ট্রেনে কাটা পড়ে এক দম্পতি নিহত হয়েছেন। তারা হলেন- মোকছেদুল ইসলাম (৩৭) ও তার স্ত্রী তহুরা বেগম (৩২)। রোববার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে পার্বতীপুর-সৈয়দপুর রেলপথের রামপুর জোড়তাল রেলগেটে এ ঘটনা ঘটে।

মোকছেদুল ইসলামের বাড়ি পার্বতীপুর উপজেলার বেলাইচন্ডি ইউনিয়নের বাঘাচড়া গ্রামে। তিনি ঠাকুরগাঁও চিনিকলের আনসার সদস্য ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী রামপুর গ্রামের আ. রহিম জানান, পার্বতীপুর থেকে তিতুমীর ট্রেনটি সৈয়দপুর যাচ্ছিল। এ সময় মোকছেদুল মোটরসাইকেল নিয়ে রেললাইনের ওপর উঠে পড়েন। ট্রেনের ধাক্কায় মুহূর্তে তিনি ও তার স্ত্রী কয়েক গজ দূরে গিয়ে ছিটকে পড়েন। সম্ভবত তার মোটরসাইকেলটি রেললাইনে উঠে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।

নিহত তহুরার মামা জানান, মোকছেদুল সকাল ১১টার দিকে শ্বশুরবাড়ি কৈপুলকী চাকরান পাড়ায় বেড়াতে আসেন। এসেই স্ত্রীকে নিয়ে মোটরসাইকেলে করে বাজার করতে যান। বাজার থেকে ফেরার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। তাদের মিথিলা ও মরিয়ম নামের দুই মেয়ে রয়েছে।

তিতুমীর ট্রেনের ড্রাইভার মিজানুর রহমান জানান, তিনি হর্ন বাজিয়ে রেলগেট অতিক্রম করছিলেন। হঠাৎ করেই মোটরসাইকেলটি রেললাইনে উঠে পড়লে এ দুর্ঘটনা ঘটে। বিষয়টি সঙ্গে সঙ্গে রেলের কন্ট্রোলরুমে জানানো হয়।

সৈয়দপুর রেলওয়ে থানার এসআই মোস্তফা কামাল বলেন, রেলগেটটি উন্মুক্ত থাকায় সেখানে কোনো গেটম্যান নেই। অসাবধানতাবশত এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। নিহত দম্পতির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় রেলওয়ে থানায় ইউডি মামলা হবে।