জর্ডানে বন্যায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১২

রবিবার, নভেম্বর ১১, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : জর্ডানের প্রাচীন নগরী পেত্রায় কয়েকদিনের ভারী বৃষ্টি ও বন্যায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১২ জনে দাঁড়িয়েছে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা এ খবর প্রকাশ করেছে।

খবরে বলা হয়, দেশটির সরকারি মুখপাত্র জুমানা ঘুনাইমাত জানিয়েছেন, দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে ঐতিহ্যবাহী এই পর্যটন এলাকা থেকে চার হাজারের বেশি পর্যটককে সরিয়ে নিতে বাধ্য হয়েছে কর্তৃপক্ষ।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানায়, নগরীর মাডাবা এলাকায় এখনও পাঁচজন নিখোঁজ রয়েছে। বন্যার পানির তোড়ে তাদের গাড়ি ভেসে যায়। হেলিকপ্টারে করে তাদের অনুসন্ধান অভিযান চলছে।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনের খবরে বলা হয়, পেত্রায় কোথাও কোথাও বন্যার পানি ১৩ ফুট উঁচুতে উঠছে। শনিবার সেখানে আরও ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস থাকায় এলাকাবাসীদের বাড়িঘর ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে জর্ডানে ভারী বৃষ্টি হচ্ছে।

শনিবার এক বিবৃতিতে জুমানা ঘুনাইমাত জানান, পাহাড়ি এলাকায় আকস্মিক বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার পর পরই পর্যটন স্পটগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

তবে শহরের প্রধান প্রশাসক সুলেইমান ফারাজাত জানান, রবিবার ( ১১ নভেম্বর) থেকে পর্যটন স্পটগুলো পুনরায় চালু করা হতে পারে।

আরব নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত শুক্রবার বিকেলে হঠাৎ নেমে আসে পাহাড়ি ঢল। ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয় প্রায় দুই হাজারের বেশি মানুষ। প্লাবিত হয়েছে আশেপাশের এলাকাগুলো। ঝড়ো আবহাওয়া বিরাজ করছে গোটা দেশটিতে।

ফলে বিধ্বস্ত হয় রাস্তাঘাট, উপড়ে গেছে গাছপালাও। রাস্তাঘাট তলিয়ে যাওয়ায় বিচ্ছিন্ন রয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থাও। ভেঙ্গে পড়েছে বেশ কিছু দোকান। এরই মধ্যে সরকারি উদ্যোগে উদ্ধার কার্যক্রম শুরু হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় বিপর্যস্ত এলাকায় কাজ করছে উদ্ধারকর্মীরা।

মাত্র দুই সপ্তাহ আগে বন্দর নগরী আকাবায় আকস্মিক বন্যায় স্কুল শিক্ষার্থীদের বহনকারী একটি বাস ভেসে গিয়ে ‘ডেড সি’ তে ডুবে ১৮ শিশুসহ ২১ জন প্রাণ হারায়।