সংলাপ শেষ, যা বলে গেলেন ড. কামাল

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১, ২০১৮

ঢাকা: সাড়ে তিন ঘণ্টার সংলাপ শেষ হয়েছে আওয়ামী লীগ ও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সঙ্গে। সন্ধ্যা সাতটা থেকে রাত ১০টা ৪০ মিনিট পর্যন্ত কথা হয় দুই পক্ষে।

দীর্ঘ এই আলোচনা চলে গণভবনে। সংলাপ শেষে বের হওয়ার সময় দুই পক্ষের নেতাদের মুখেই হাসি দেখা গেছে। আলোচনা ভালো হয়েছে বলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

দুই এখনও আলোচনার বিষয় নিয়ে দুই পক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি। তবে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের কথা বলতে পারেন বলে জানানো হয়েছে।

অন্যদিকে ঐক্যফ্রন্টের বক্তব্য জানানো হতে পারে বেইলি রোডে ড. কামাল হোসেনের বাসভবনে। তবে তিনি গণভবন ছাড়ার সময় এক বাক্যে বলেছেন, ‘আলোচনা ভালো হয়েছে।’

বৃহস্পতিবার (১ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে কামাল হোসেনের নেতৃত্বে গণভবনে প্রবেশ করেন তারা।

এর আগে সন্ধ্যা সোয়া ৫টায় কামাল হোসেনের বেইলি রোডের বাসা থেকে যাত্রা শুরু করেন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। রওনা হওয়ার আগে নেতারা কামাল হোসেনের বাড়িতে পৌঁছে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা।

প্রতিনিধিদলে নেতাদের মধ্যে রয়েছেন খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, আবদুল মঈন খান । জাফরুল্লাহ চৌধুরী, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সদস্য সচিব আ ব ম মোস্তফা আমীন, সাবেক দুই সংসদ সদস্য এস এম আকরাম ও সুলতান মো. মনসুর আহমেদ গেছেন গণভবনে। জেএসডির আ স ম আবদুর রব, তানিয়া রব, আবদুল মালেক রতন, গণফোরামের সুব্রত চৌধুরী, মোস্তফা মহসিন মন্টু, মোকাব্বির খান, জগলুল হায়দার আফ্রিক, আ ও ম শফিকউল্লাহ এবং নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না।

সংসদ ভেঙে, খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একাদশ সংসদ নির্বাচনের দাবি তোলা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গত রোববার সংলাপের আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চিঠি পাঠান।