বিয়ের পরও কর্মতৎপর থাকবেন দীপিকা

রবিবার, অক্টোবর ২৮, ২০১৮

বিনোদন ডেস্ক : হাতে মাত্র আর কয়েকটা দিন; তারপরই প্রেমিক-প্রেমিকা থেকে স্বামী-স্ত্রীতে পরিণত হবেন দীপিকা পাড়ুকোন ও রণবীর সিং। টানা ৬ বছর প্রেমের পর অবশেষে পরিণতি পেতে চলেছে ‘দীপবীর’-এর প্রেম। বিয়ের দিনের কথা গত ২১ অক্টোবর সোশ্যাল সাইটে ঘোষণা করেছেন রণবীর-দীপিকা। আগামী ১৪ ও ১৫ নভেম্বর সাত পাকে বাঁধা পড়বেন এই তারকা জুটি।

আর দশটা ভারতীয় মেয়ের মতো বিয়ে নিয়ে ভীষণ উচ্ছ্বসিত এই অভিনেত্রী। তবে বিয়ের পর একটুও বদলাবেন না তিনি। থাকবেন ঠিক আগের মতোই কর্মতৎপর। বিয়ে প্রসঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে দীপিকা বলেছিলেন, বিয়ে নিয়ে যেকোনো মেয়ের মতো তিনিও রোমাঞ্চিত। এখন বললেন, ‘আমি অবশ্যই রোমাঞ্চিত। যতটা রোমাঞ্চিত পরের ছবিতে নিজের গান করা নিয়ে। অন্য দশটা মেয়ের মতো বিয়েটা আমার জীবনের একটা বিশেষ ঘটনা। যখনই হোক, এটা হবে রোমাঞ্চকর। কিন্তু বিয়ের পর সবকিছু বদলে যাবে, তেমন নয়।’

‘ইন্ডিয়া টুডে’র সঙ্গে ওই সাক্ষাৎকারে দীপিকার বাবা প্রকাশ পাড়ুকোনও ছিলেন। বিয়ের আয়োজন আর আনুষ্ঠানিকতার পরিবর্তন নিয়ে কথা বলেন তিনি। বলেন, আজকাল বর-কনেই সব ঠিক করে, মা-বাবা কেবল সঙ্গে থাকে।

বিয়েটা কীভাবে হবে? এ প্রসঙ্গে দীপিকা তার মা-বাবার সঙ্গে পরিকল্পনা ভাগাভাগি করেছেন। সেভাবেই সব আয়োজন করছেন তারা। দীপিকা বলেন, ‘আমি দেখেছি, মা-বাবা এসব ভালোভাবেই করেছেন। তারা যেভাবে ভালো মনে করবেন, সেভাবে আমার মঙ্গল হবে বলে আমি বিশ্বাস করি। আমার মনে হয়, তাদের সম্পর্কটা ভালো আছে। তারা সংসারের পাশাপাশি পেশাগত জীবন চালিয়ে নিয়েছেন। তাদের সেই জীবনযাপন আমার আর আমার বোনের কাছে উদাহরণস্বরূপ। আমিও চাই সেভাবে জীবন কাটাতে।’

জানা গেছে, ‘দীপবীর’র বিয়ে হবে ডেল বাল্বিনেলো ভিলাতে। এই ভিলাতে ১৪ নভেম্বর মেহেদি, সংগীতসহ বিয়ের অন্যান্য অনুষ্ঠান হবে। ১৫ নভেম্বর সিন্ধি এবং দক্ষিণ ভারতীয় রীতির নিয়ম মেনে দীপবীর বিবাহবন্ধনে বাঁধা পড়বেন। বিয়ের দিনগুলোতে প্রখ্যাত ডিজাইনার সব্যসাচীর ডিজাইন করা শাড়িসহ অন্যান্য পোশাক পরবেন দীপিকা। বিটাউনে আরো শোনা যাচ্ছে, তাদের বিয়েতে ঘনিষ্ঠ বন্ধু এবং আত্মীয়স্বজন-সব মিলিয়ে ৩০ জন উপস্থিত থাকবেন।

তবে মুম্বাইয়ে এক জমকালো রিসেপশনের আয়োজন করবেন দীপবীর। জানা গেছে, ১ ডিসেম্বর এই রিসেপশনে বিটাউনসহ করপোরেট জগতের অনেকেই নববিবাহিত এই তারকা দম্পতিকে শুভেচ্ছা জানাতে আসবেন। বেঙ্গালুরুতেও হবে রিসেপশন। কারণ দীপিকা পাড়ুকোনের বাসা বেঙ্গালুরুতে। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস