সৌদির ২১ নাগরিকের মার্কিন ভিসা বাতিল করল যুক্তরাষ্ট্র

বুধবার, অক্টোবর ২৪, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক; প্রথিতযশা সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে নিষ্ঠুরভাবে হত্যার ঘটনায় বিশ্বব্যাপী ক্ষোভের মধ্যে ঘনিষ্ঠ মিত্র সৌদির বিরুদ্ধে প্রথম কোনো পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে ওয়াশিংটন। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ২১ সৌদি নাগরিকের মার্কিন ভিসা বাতিল কিংবা অযোগ্য ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হিদার নুয়ার্ট মঙ্গলবার (২৩ অক্টোবর) এ তথ্য জানিয়েছেন।

সংবাদমাধ্যমটি জানায়, ওয়াশিংটন এ ধরনের ব্যবস্থা নিলে এসব সৌদি নাগরিক যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে পারবেন না।

এদিকে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রথমবারের মতো স্বীকার করেছেন, সৌদি সিংহাসনের উত্তরসূরি মোহাম্মদ বিন সালমান ভিন্নমতাবলম্বী সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকতে পারেন।

এর আগে গত ১৫ অক্টোবর (সোমবার) সৌদি রাজা সালমানের সঙ্গে এক ফোনালাপের পর সংবাদ সম্মেলনে সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগির নিখোঁজ এবং হত্যার ঘটনায় সৌদি আরবকে নির্দোষ বলেছিলেন তিনি।

উল্লেখ্য: সৌদি যুবরাজ সালমানের কট্টর সমালোচক ছিলেন জামাল খাশোগি। আমেরিকায় স্বেচ্ছা-নির্বাসনে থাকা প্রথিতযশা এই সাংবাদিক তার তুরস্কে থাকা বান্ধবীকে বিয়ের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আনতে গত ২ অক্টোবর (মঙ্গলবার) তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরের সৌদি কনস্যুলেটে যান। কিন্তু সেখান থেকে তিনি আর ফিরে আসেননি।

শুরু থেকে তুরস্ক দাবি করেছিল, খাশোগিকে কনস্যুলেট ভবনের ভেতর সৌদির চররা হত্যা করে লাশ টুকরো টুকরো করে ফেলে দিয়েছে কোথাও। ঘটনার পর থেকে খাশোগি নিখোঁজের ব্যাপারে কিছু জানা নেই বলে জানিয়েছিল সৌদি।

আন্তর্জাতিক চাপে শেষমেষ ১৭ দিন পর গত ১৯ অক্টোবর (শুক্রবার) প্রথমবারের মতো এক বিবৃতিতে কনস্যুলেট ভবনের ভেতরই হত্যার বিষয়টি স্বীকার করে দেশটি।