সেভিয়াকে উড়িয়ে দিয়ে শীর্ষে বার্সেলোনা

রবিবার, অক্টোবর ২১, ২০১৮

স্পোর্টস ডেস্ক : অবশেষে লা লিগায় জয়ের দেখা পেল বার্সেলোনা। আর এজন্য অপেক্ষা করতে হয়েছে তাদের চার ম্যাচ। তিন ড্র ও এক হারে আগের ম্যাচে সেভিয়ার কাছে এক নম্বর আসন হারায় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। এবার তাদের হারিয়ে সেটা পুনরুদ্ধার করেছে এর্নেস্তো ভালভারদের শিষ্যরা।

শনিবার রাতে ন্যু ক্যাম্পে সেভিয়াকে ৪-২ গোলে হারিয়ে লিগের শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করলো বার্সেলোনা।

বার্সেলোনার ম্যাচের শুরুটা হয় দুর্দান্ত। ম্যাচের ১২তম মিনিটের মধ্যেই দুই গোলে এগিয়ে যায় তারা।

ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটে মেসির দারুণ রক্ষণচেরা পাস ডি-বক্সে ফাঁকায় পেয়ে ডান পায়ের উঁচু কোনাকুনি শটে দূরের পোস্ট দিয়ে জাল খুঁজে নেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ফিলিপে কৌতিনিয়ো।

ম্যাচের ৬ মিনিটে সেভিয়ার সুযোগ নষ্ট হওয়া ছিল দুর্ভাগ্যজনক। গিলেরমো আরানা বার্সা গোলরক্ষক মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগেনকে পরাস্ত করলেও লক্ষ্যভেদ করতে পারেননি গোলপোস্ট বাধা হয়ে দাঁড়ালে। ম্যাচের ১২তম মিনিটে সেভিয়াকে আরও পেছনে ফেলে বার্সা। মাঝমাঠ থেকে লুইস সুয়ারেসের বাড়ানো বল ধরে অনেকখানি এগিয়ে গিয়ে একজনকে কাটিয়ে ডি-বক্সের ঠিক বাইরে থেকে বাঁ পায়ের জোরালো শটে দূরের পোস্ট ঘেঁষে লক্ষ্যভেদ করেন লিওনেল মেসি। লিগে আর্জেন্টাইন তারকার গোল হলো সাতটি।

চার মিনিট পর বড় ধাক্কাটা খায় বার্সেলোনা। দারুণ নৈপুণ্য দেখিয়ে দুই গোলে এগিয়ে দেওয়ার পর চোটে পড়েন মেসি। বার্সা অধিনায়ককে মাঠ ছাড়তে হয় বাধ্য হয়ে। উসমান দেম্বেলেকে বদলি নামান কোচ।

প্রথমার্ধের শেষদিকে বেশ কয়েকটি ভালো সুযোগ পেয়েছিল ভালভারদের শিষ্যরা। তবে সুয়ারেস, দেম্বেলে, ইভান রাকিতিচদের ব্যর্থতায় ব্যবধান বাড়েনি।

বিরতির পর ম্যাচের ৬৩তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে ৩-০ স্কোর হয় বার্সার। প্রতিপক্ষ গোলরক্ষক ভাকলিক বল বিপদমুক্ত করতে গিয়ে সুয়ারেসকে ফাউল করেন। আর তাতে স্পট কিক থেকে গোলটি করেন উরুগুয়ান স্ট্রাইকার।

ম্যাচের ৭৯তম মিনিটে বানেগার পাসে বক্সের প্রান্ত থেকে বার্সাকে এক গোল শোধ দেন পাবলো সারাবিয়া। সারাবিয়া ৮৭ মিনিটে বার্সার জালে আরেকবার বল জড়ান। কিন্তু রেফারি সেটা বাতিল করে দেন সেভিয়া মিডফিল্ডার হাত দিয়ে বল নিয়ন্ত্রণ করায়। অতিথিদের ফেরার তীব্র আকাঙ্ক্ষা ধুলোয় মিশিয়ে দিয়ে ম্যাচের ৮৮তম মিনিটে দুর্দান্ত গোল করেন রাকিতিচ।

যোগ করা সময়ের প্রথম মিনিটে কলম্বিয়ার মিডফিল্ডার লুকাস মুরিয়েলের শটে শুধু আরেক দফা ব্যবধানই কমে। এতে করে খেলা শেষ হয় ৪-২ গোলের ব্যবধানে। তিন ড্র ও এক হারের পর চতুর্থ ম্যাচে বার্সেলোনার এ অদম্য জয়।

এ জয়ের পর শীর্ষে ওঠা বার্সেলোনার পয়েন্ট নয় ম্যাচে পাঁচ জয় ও তিন ড্রয়ে ১৮। ১ পয়েন্ট কম নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে আলাভেস। তৃতীয় স্থানে নেমে যাওয়া সেভিয়ার পয়েন্ট ১৬। আতলেতিকো মাদ্রিদ সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে। আর রিয়াল মাদ্রিদ ১৪ পয়েন্ট নিয়ে আছে পঞ্চম স্থানে।

সূত্র: গোল ডটকম