চীনে ১০০ কোটির ক্লাবে ‘হিচকি’

রবিবার, অক্টোবর ২১, ২০১৮

বিনোদন ডেস্ক : গত ২৩ মর্চ ভারতে মুক্তি পেয়েছিল ‘হিচকি’ ছবিটি। মা হওয়ার পর পর্দায় ফিরে এসে ফের একবার দর্শকদের মুগ্ধ করেছিলেন একসময়ের বলিউডের ১ নম্বর অভিনেত্রী রানি মুখার্জি। ‘হিচকি’র জন্যই চলতি বছর মেলবোর্নের আয়োজিত ভারতীয় ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে সেরা অভিনেত্রীদের তালিকায় মনোনিত হয় রানির নাম।

গত জুনে সাংহাই আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রশংসিত হয় ছবিটি। সেখানকার দর্শকদের ‘হিচকি’ ছবিটি এতটাই পছন্দ হয় যে উঠে দাঁড়িয়ে অভ্যর্থনা (standing ovation) জানান। এছাড়া ছবিটি মুক্তির পর এর চিত্রনাট্য এবং রানির অভিনয়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ছিলেন দর্শকরা। এরপর রাশিয়ায় মুক্তি পায় ছবিটি। সেখানেও ব্যাপক প্রশংসা পায়।

সামাজিক বার্তা নির্ভর ছবিটিতে অভিনয় করে রানী মুখার্জী নতুন করে আলোচনায় আসেন। সেই আলোচনার সূত্র ধরেই চীনে মুক্তি পায় ‘হিচকি’। গত ১২ অক্টোবর পৃথিবীর সবথেকে জনবহুল দেশটিতে মুক্তি পায় ছবিটি।

রবিবার সিনেমা বাণিজ্য বিশ্লেষক তারান আদার্শ এক টুইট বর্তায় জানান, প্রথম ৯ দিনে ছবিটির আয় হয়েছে ৭১.৮৮ কোটি রুপি। দ্বিতীয় সপ্তাহেই ছবিটি ছবিটি ১০০ কোটির ক্লাবে প্রবেশ করবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তারান।

এই ছবিতে শিক্ষিকা নয়না মাথুরের চরিত্রে দেখা গেছে রানি মুখার্জিকে। যিনি কিনা ছোটো থেকেই টুরেট সিন্ড্রোমে আক্রান্ত। সে কীভাবে তার প্রফেসরের কথাতে উদ্বুদ্ধ হয়ে জন্মগত সমস্যা কাটিয়ে শিক্ষিকা হওয়ার স্বপ্ন দেখে এবং হাজারো বাধা পার করে শিক্ষিকা হয়ে ওঠে, সেটাই এই ছবিতে তুলে ধরা হয়েছে।

ব্র্যাড কোহেনের লেখা আত্মজীবনী “ফ্রন্ট অফ দ্যা ক্লাস : হাউ টুরেট সিন্ড্রোম মেড মি দ্যা টিচার আই নেভার হ্যাড” অবলম্বনে লেখা হয়েছে রানির ‘হিচকি’র চিত্রনাট্য। যে ছবিতে উঠে এসেছে অসুস্থতা কাটিয়ে এক যুবতীর শিক্ষিকা হয়ে ওঠার কাহিনি। ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে শিক্ষিকার সম্পর্ক।