মালদ্বীপ ছেড়ে পালালেন ৪ নির্বাচনী কর্মকর্তা

রবিবার, অক্টোবর ১৪, ২০১৮

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : দ্বীপদেশ মালদ্বীপের রাজনীতি ফের সরগরম হয়ে উঠেছে। দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী আব্দুল্লাহ ইয়ামিন ভোটের ফল চ্যালেঞ্জ করে আদালতে গেছেন।

এরই মধ্যে জানা গেছে, মালদ্বীপের নির্বাচন কমিশনের চার কর্মকর্তা দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন। তাদের মধ্যে তিনজন শ্রীলংকায় গিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা বলেন, হুমকির কারণে আমি দেশ ছেড়েছি।

এসব কর্মকর্তার আশঙ্কা, মালদ্বীপে থাকলে যে কোনো মুহূর্তে খুন হয়ে যেতে পারেন। গত ফেব্রুয়ারি থেকেই টালমাটাল এই দ্বীপরাষ্ট্রের রাজনীতি। -খবর আনন্দবাজারপত্রিকা অনলাইনের।

তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ইয়ামিন হঠাৎ করেই দেশে জরুরি অবস্থা জারি করেন। বিরোধীদের কারাগারে ঢোকান। সুপ্রিমকোর্টের বিচারপতিরাও বাদ পড়েননি সেই সময়।

কিন্তু গত সেপ্টেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হেরে যায় ইয়ামিনের দল প্রোগ্রেসিভ পার্টি অব মালডিভস। ইয়ামিন পুনর্নির্বাচনের দাবি তুললেও আগামী নভেম্বরেই নতুন জোটের সরকার গঠন করার কথা।

জোট সরকারের নেতৃত্বে রয়েছেন মালডিভিয়ান ডেমোক্র্যাটিক পার্টির নেতা ইব্রাহিম মহম্মদ সোলিহ। এ পরিস্থিতিতে ভোটের ফল চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিমকোর্টের দ্বারস্থ হন ইয়ামিন।

নির্বাচন কমিশনের যে চার কর্মী শ্রীলংকায় চলে গেছেন, তাদের মধ্যে তিনজন এখন কলম্বোয়। বাকি একজন কোথায়, তা জানা যায়নি। দেশে এখনও রয়েছেন দুই নির্বাচনী কর্মকর্তা।

তবে ওই চারজন যে দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন, সে সম্পর্কে ওয়াকিফহাল ইয়ামিনের দল। তাদের দাবি, সরকারের তরফে প্রাণ সংশয়ের অভিযোগ একেবারে ভিত্তিহীন।