ফিক্সিংয়ের অভিযোগে হংকংয়ের তিন ক্রিকেটার নিষিদ্ধ

মঙ্গলবার, অক্টোবর ৯, ২০১৮

স্পোর্টস ডেস্ক : ম্যাচ ফিক্সিংয়ের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে হংকংয়ের তিন ক্রিকেটারকে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে সাময়িক ভাবে নিষিদ্ধ ঘোষন করেছে আইসিসি।

হংকং দলের এই তিন ক্রিকেটারের একজন নাদিম আহমেদ সদ্য শেষ হওয়া এশিয়া কাপ ক্রিকেটে খেলেছেন ভারত এবং পাকিস্তানের বিপক্ষে দুই ম্যাচেই।বাকি দু’জন হলেন ইরফান আহমেদ এবং হাসিব আমজাদ।ইরফান আহমেদ আবার নাদিম আহমেদেরই ভাই। হংকংয়ের এই তিন ক্রিকেটারই পাকিস্তান বংশোদ্ভূত।

এশিয়া কাপ শেষ হতে না হতেই হংকংয়ের তিন ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগ আনলো আইসিসি। তিনজনের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট ১৯টি অভিযোগ আনা হয়েছে।

যদিও ম্যাচ ফিক্সিংয়ের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে এশিয়া কাপে নয়, তাদের নামে অভিযোগ আনা হয়েছে ২০১৪ সালের জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত ২০১৫ বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচে ফিক্সিং করার। এছাড়া নাদিন এবং ইরফান- দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ এসেছে ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ টি-টোয়েন্টিতে ফিক্সিং করারও।

ইরফানের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত অভিযোগ, ২০১৪ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে ওয়ার্ম আপ ম্যাচে ঘুষ নেওয়ার। বেশ কয়েকটি ম্যাচ ফিক্সিংয়ের। ২০১৫ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের একাধিক ম্যাচ ফিক্সিং করার অভিযোগ তোলা হয়েছে আইসিসির পক্ষ থেকে। ইরফান আহমেদের নামেই অভিযোগ আনা হয়েছে মোট ৯টি।

আইসিসি তিনজনকেই সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে। অভিযোগ সম্পর্কে একটি সিদ্ধান্তে না আসা পর্যন্ত নিষিদ্ধই থাকবেন তারা। তবে ফিক্সিঙয়ের অভিযোগে দু’বছর আগেই নিষিদ্ধ হন ইরফান আহমেদ। তার সঙ্গে এবার নাদিম ও হাসিবের বিরুদ্ধেও ২০১৪ জানুয়ারিতে স্কটল্যান্ড ও কানাডার বিরুদ্ধে খেলা ম্যাচেও একই অভিযোগ উঠল। আগামী দু’সপ্তাহের মধ্যে এই তিন ক্রিকেটারকে উত্তর দিতে বলা হয়েছে আইসিসির পক্ষ থেকে।

ইরফানের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত অভিযোগ, ২০১৪ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে ওয়ার্ম আপ ম্যাচে ঘুষ নেওয়ার। বেশ কয়েকটি ম্যাচ ফিক্সিংয়ের। ২০১৫ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের একাধিক ম্যাচ ফিক্সিং করার অভিযোগ তোলা হয়েছে আইসিসির পক্ষ থেকে। ইরফান আহমেদের নামেই অভিযোগ আনা হয়েছে মোট ৯টি।